নিহত যুবলীগ নেতার ভাইপোর আবেগঘন স্ট্যাটাস
jugantor
নিহত যুবলীগ নেতার ভাইপোর আবেগঘন স্ট্যাটাস

  কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি  

০১ ডিসেম্বর ২০২২, ২২:৫৩:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে দুপক্ষের সংঘর্ষে আরিফুল ইসলাম নামে ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম নিহত হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছে নিহতের ভাইপো সাদ আহমেদ জিকো।

বুধবার রাতে নিহত আরিফুল ইসলামের দুটি ছবি দিয়ে Prim Ziko নামের আইডি থেকে পোস্টটি করেন তিনি।

স্ট্যাটাসে তিনি উল্লেখ করেন-

‘মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম (আমার আপন চাচা), নিজ গ্রামের কিছু চিহ্নিত সন্ত্রাসী দ্বারা হামলার শিকার হন। হামলার পর এক ঘণ্টা বাসায় অবরুদ্ধ করে রাখে কোনোরকম চিকিৎসা গ্রহণের সুযোগ দেওয়া হয় না। এক ঘণ্টা পর কোনোরকম বাসা থেকে বের হয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় যশোর এবং যশোর থেকে ঢাকায় নেওয়ার পথে মৃত্যুবরণ করেন (ইন্নালিল্লাহি ... রাজিউন)। তিনি ছিলেন আওয়ামী লীগের একজন জনপ্রিয় নেতা এবং সাবেক যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক। কালীগঞ্জ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর ও যুবলীগের সাবেক সভাপতি রেজাউল করিমের ভাই। দুঃখের বিষয় ১টাই ঘটনা ঘটার সময় পুলিশ কোনোরকমে দেখা পায়নি। পুলিশ বাহিনীকে অনেক সম্মান করি কিন্তু ঠিক সময়ে যদি না পাওয়া যায় তাহলে আর কি করা যাবে। পুলিশ থাকলে হয়তো ঠিকসময়ে হাসপাতালে নেওয়া সম্ভব হতো।

যাই করেন ভাই রাজনীতি কইরেন না। রাজনীতি করলেও আওয়ামী লীগ কইরেন না আওয়ামী লীগের কর্মী দল ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় দলের লোকের হাতে মার খেয়ে মৃত্যুবরণ করল তাহলে তার দল করে কি লাভ? বয়কট রাজনীতি। ভুল ত্রুটি মার্জনীয়।’

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে কালীগঞ্জ পৌরসভাধীন কাশিপুর বেদে পল্লীতে দুইপক্ষের সংঘর্ষে আরিফুল ইসলাম নামে ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নিহত হয়েছেন। নিহত আরিফ কাশিপুর গ্রামের মৃত ইব্রাহিম লস্কারের ছেলে ও পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। এছাড়াও আরিফুল ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করে পরাজিত হন। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামি করে কালীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

নিহত যুবলীগ নেতার ভাইপোর আবেগঘন স্ট্যাটাস

 কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি 
০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে দুপক্ষের সংঘর্ষে আরিফুল ইসলাম নামে ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম নিহত হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছে নিহতের ভাইপো সাদ আহমেদ জিকো। 

বুধবার রাতে নিহত আরিফুল ইসলামের দুটি ছবি দিয়ে Prim Ziko নামের আইডি থেকে পোস্টটি করেন তিনি।

স্ট্যাটাসে তিনি উল্লেখ করেন-

‘মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম (আমার আপন চাচা), নিজ গ্রামের কিছু চিহ্নিত সন্ত্রাসী দ্বারা হামলার শিকার হন। হামলার পর এক ঘণ্টা বাসায় অবরুদ্ধ করে রাখে কোনোরকম চিকিৎসা গ্রহণের সুযোগ দেওয়া হয় না। এক ঘণ্টা পর কোনোরকম বাসা থেকে বের হয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় যশোর এবং যশোর থেকে ঢাকায় নেওয়ার পথে মৃত্যুবরণ করেন (ইন্নালিল্লাহি ... রাজিউন)। তিনি ছিলেন আওয়ামী লীগের একজন জনপ্রিয় নেতা এবং সাবেক যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক। কালীগঞ্জ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর ও যুবলীগের সাবেক সভাপতি রেজাউল করিমের ভাই। দুঃখের বিষয় ১টাই ঘটনা ঘটার সময় পুলিশ কোনোরকমে দেখা পায়নি। পুলিশ বাহিনীকে অনেক সম্মান করি কিন্তু ঠিক সময়ে যদি না পাওয়া যায় তাহলে আর কি করা যাবে। পুলিশ থাকলে হয়তো ঠিকসময়ে হাসপাতালে নেওয়া সম্ভব হতো।

যাই করেন ভাই রাজনীতি কইরেন না। রাজনীতি করলেও আওয়ামী লীগ কইরেন না আওয়ামী লীগের কর্মী দল ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় দলের লোকের হাতে মার খেয়ে মৃত্যুবরণ করল তাহলে তার দল করে কি লাভ? বয়কট রাজনীতি। ভুল ত্রুটি মার্জনীয়।’

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে কালীগঞ্জ পৌরসভাধীন কাশিপুর বেদে পল্লীতে দুইপক্ষের সংঘর্ষে আরিফুল ইসলাম নামে ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নিহত হয়েছেন। নিহত আরিফ কাশিপুর গ্রামের মৃত ইব্রাহিম লস্কারের ছেলে ও পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। এছাড়াও আরিফুল ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করে পরাজিত হন। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামি করে কালীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন