যে কারণে স্টেশনে ছদ্মবেশে ইউএনও
jugantor
যে কারণে স্টেশনে ছদ্মবেশে ইউএনও

  দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি  

০১ ডিসেম্বর ২০২২, ২২:৫৭:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

আন্তঃনগর তিস্তা ট্রেন ছাড়ার আগে ছদ্মবেশে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুন্নাহার শেফা জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ রেলস্টেশনে যান। টিকিট কালোবাজারি ধরতে তিনি বৃহস্পতিবার রেলস্টেশনে যান।

ইউএনও স্টেশনে গিয়ে দেখেন- কালোবাজারে ট্রেনের পোশাক পরিহিত স্টুয়ার্ড আসলাম হোসেন টিকিট বিক্রি করছেন। এ সময় তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। অপর স্টুয়ার্ড টিকিট কালোবাজারি দৌড়ে পালিয়ে যান।

আটক স্টুয়ার্ডের কাছ থেকে ৬ আসনের তিনটি টিকিট পাওয়া যায়। ভ্রাম্যমাণ আদালত ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ৩ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন। আরেকজন পালিয়ে যাওয়া স্টুয়ার্ডের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা করার জন্য রেলওয়ে পুলিশকে নির্দেশ প্রদান করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দেওয়ানগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার আব্দুল বাতেন, রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী, রেল পুলিশসহ দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ।

আসলাম হোসেনের বাড়ি গাইবান্ধার কঞ্চিপাড়ায়। দীর্ঘদিন ধরে ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ চলাচলকারী আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেসে বিনা টিকিটে যাত্রী নেওয়া এবং চড়া দামে কালোবাজারি করে ট্রেনের টিকিট বিক্রির অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

যে কারণে স্টেশনে ছদ্মবেশে ইউএনও

 দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি 
০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আন্তঃনগর তিস্তা ট্রেন ছাড়ার আগে ছদ্মবেশে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুন্নাহার শেফা জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ রেলস্টেশনে যান। টিকিট কালোবাজারি ধরতে তিনি বৃহস্পতিবার রেলস্টেশনে যান।

ইউএনও স্টেশনে গিয়ে দেখেন- কালোবাজারে ট্রেনের পোশাক পরিহিত স্টুয়ার্ড আসলাম হোসেন টিকিট বিক্রি করছেন। এ সময় তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। অপর স্টুয়ার্ড টিকিট কালোবাজারি দৌড়ে পালিয়ে যান।

আটক স্টুয়ার্ডের কাছ থেকে ৬ আসনের তিনটি টিকিট পাওয়া যায়। ভ্রাম্যমাণ আদালত ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ৩ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন। আরেকজন পালিয়ে যাওয়া স্টুয়ার্ডের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা করার জন্য রেলওয়ে পুলিশকে নির্দেশ প্রদান করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দেওয়ানগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার আব্দুল বাতেন, রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী, রেল পুলিশসহ দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ।

আসলাম হোসেনের বাড়ি গাইবান্ধার কঞ্চিপাড়ায়। দীর্ঘদিন ধরে ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ চলাচলকারী আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেসে বিনা টিকিটে যাত্রী নেওয়া এবং চড়া দামে কালোবাজারি করে ট্রেনের টিকিট বিক্রির অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন