যুগান্তরের গলাচিপা প্রতিনিধির ওপর সন্ত্রাসী হামলা
jugantor
যুগান্তরের গলাচিপা প্রতিনিধির ওপর সন্ত্রাসী হামলা

  পটুয়াখালী প্রতিনিধি  

০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩:৩৮:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

যুগান্তরের গলাচিপা প্রতিনিধির ওপর সন্ত্রাসী হামলা

দৈনিক যুগান্তরের গলাচিপা উপজেলা প্রতিনিধি ও গলাচিপা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সোহাগ রহমান (৪২) সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন।

রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার পোস্ট অফিস সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত সোহাগ গলাচিপা উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে হামলাকারীদের আটক করেছে পুলিশ।

হামলাকারীরা হলেন- উপজেলার মৃত্যু আবুল কালাম মোহাম্মাদ ইছার ছেলে মারুফ মোহাম্মদ ইভান (৩৭) ও তানভীর মোহাম্মদ আকিদ (২৮)।

আহত সোহাগের সহকর্মী রিপন বিশ্বা্স ও হাফিজুর রহমান ঘটনার বরাত দিয়ে বলেন, রোববার সন্ধ্যায় তিন সহকর্মী মিলে পোস্ট অফিসের সামনে বসে গল্প করছিলেন। এ সময় মারুফ সোহাগকে ব্যাঙ্গ করে ডাকেন। এতে সোহাগ ও তার সহকর্মীরা সাড়া না দিলে মারুফ পেছন থেকে এসে হামলা করেন।একপর্যায়ে মারুফের ছোটভাই তানভীর হামলায় অংশ নেন এবং ব্যাপক মারধর করেন তারা।এতে সোহাগের বাম চোখ এবং বাম চোয়ালে রক্তাত্ব জখম হয়। পরে তারা পুলিশকে খবর দিলে এএসআই সজিব ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দুই ভাইকে আটক করেন। বর্তমানে দুই ভাই পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন।

আহত সোহাগের পরিবারের অভিযোগ, প্রতিবেশি ভাঙারি মনিরের সঙ্গে সোহাগের অভ্যন্তরীণ বিরোধ চলে আসছে।মনিরের সঙ্গে তানভীর ও মারুফের পরিবারের সঙ্গে যথেষ্ট সখ্যতা রয়েছে। সেই সূত্রে তারা হামলা করতে পারে। এই হামলার এক সপ্তাহ পূর্বে মারুফ-তানভীরের মা মনিরা বেগম সোহাগের বাসায় গিয়ে তার স্ত্রীকে হুমকি-ধামকি দিয়ে আসেন।এরপরই মারুফ-তানভীর হামলা চালান।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে গলাচিপা থানার ওসি শোনিত কুমার গায়েন বলেন, আহত সোহাগ চিকিৎসাধীন রয়েছেন। হামলাকারীদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনা হয়েছে। পরিস্থিতি বুঝে ব্যবস্থা নেব। তবে এখনো পর্যন্ত আহতের পক্ষ থেকে লিখিত কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি।

যুগান্তরের গলাচিপা প্রতিনিধির ওপর সন্ত্রাসী হামলা

 পটুয়াখালী প্রতিনিধি 
০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
যুগান্তরের গলাচিপা প্রতিনিধির ওপর সন্ত্রাসী হামলা
আহত সোহাগ রহমান।ছবি: যুগান্তর

দৈনিক যুগান্তরের গলাচিপা উপজেলা প্রতিনিধি ও গলাচিপা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সোহাগ রহমান (৪২) সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন।

রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার পোস্ট অফিস সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত সোহাগ গলাচিপা উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে হামলাকারীদের আটক করেছে পুলিশ।

হামলাকারীরা হলেন- উপজেলার মৃত্যু আবুল কালাম মোহাম্মাদ ইছার ছেলে মারুফ মোহাম্মদ ইভান (৩৭) ও তানভীর মোহাম্মদ আকিদ (২৮)।

আহত সোহাগের সহকর্মী রিপন বিশ্বা্স ও হাফিজুর রহমান ঘটনার বরাত দিয়ে বলেন, রোববার সন্ধ্যায় তিন সহকর্মী মিলে পোস্ট অফিসের সামনে বসে গল্প করছিলেন। এ সময় মারুফ সোহাগকে ব্যাঙ্গ করে ডাকেন। এতে সোহাগ ও তার সহকর্মীরা সাড়া না দিলে মারুফ পেছন থেকে এসে হামলা করেন।একপর্যায়ে মারুফের ছোটভাই তানভীর হামলায় অংশ নেন এবং ব্যাপক মারধর করেন তারা।এতে সোহাগের বাম চোখ এবং বাম চোয়ালে রক্তাত্ব জখম হয়। পরে তারা পুলিশকে খবর দিলে এএসআই সজিব ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দুই ভাইকে আটক করেন। বর্তমানে দুই ভাই পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন। 

আহত সোহাগের পরিবারের অভিযোগ, প্রতিবেশি ভাঙারি মনিরের সঙ্গে সোহাগের অভ্যন্তরীণ বিরোধ চলে আসছে।মনিরের সঙ্গে তানভীর ও মারুফের পরিবারের সঙ্গে যথেষ্ট সখ্যতা রয়েছে। সেই সূত্রে তারা হামলা করতে পারে। এই হামলার এক সপ্তাহ পূর্বে মারুফ-তানভীরের মা মনিরা বেগম সোহাগের বাসায় গিয়ে তার স্ত্রীকে হুমকি-ধামকি দিয়ে আসেন।এরপরই মারুফ-তানভীর হামলা চালান। 

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে গলাচিপা থানার ওসি শোনিত কুমার গায়েন বলেন, আহত সোহাগ চিকিৎসাধীন রয়েছেন। হামলাকারীদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনা হয়েছে। পরিস্থিতি বুঝে ব্যবস্থা নেব। তবে এখনো পর্যন্ত আহতের পক্ষ থেকে লিখিত কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন