খাবারের লোভ দেখিয়ে শিশুকে নিপীড়ন, গ্রেফতার বৃদ্ধ
jugantor
খাবারের লোভ দেখিয়ে শিশুকে নিপীড়ন, গ্রেফতার বৃদ্ধ

  রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি  

০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৫৭:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

নওগাঁর রাণীনগরে খাওয়ার জিনিস দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে বাড়িতে ডেকে নিয়ে তিন বছর বয়সি এক শিশুকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মামলার ২৭ দিন পর অভিযুক্ত শফির মোল্লাকে (৬০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার বিকালে মান্দা উপজেলার জশোপাড়া গ্রাম এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত শফির মোল্লা রাণীনগর উপজেলার জালালাবাদ গ্রামের মৃত অতি মোল্লার ছেলে।

মামলাসূত্রে জানা যায়, গত ৬ নভেম্বর দুপুরে শিশুটি বাড়ির পাশে খেলা করছিল। এ সময় প্রতিবেশী শফির মোল্লা শিশুকে খাওয়ার জিনিস দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে বাড়ির ভেতরে ডেকে নিয়ে শিশুকে নানাভাবে যৌন নিপীড়ন করে। শিশুটির চিৎকার শুনে তার মা অভিযুক্তের বাড়িতে প্রবেশ করলে তাকে গালাগাল করে বের করে দেয়। পরে বাড়ি গিয়ে শিশুটি যন্ত্রণায় কান্না করতে করতে তার মাকে বিষয়টি খুলে বলে। ওই দিন শিশুটিকে প্রথমে রাণীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রেফার্ড করে। পরে ১০ নভেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সংবাদ পেয়ে রাণীনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিশুর বাবা বাদী হয়ে শফির মোল্লাকে আসামি করে ৮ নভেম্বর রাণীনগর থানায় যৌন নিপীড়নের মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রাণীনগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাজমুল হক বলেন, ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত শফির মোল্লা পলাতক ছিলেন। গোপন সূত্রে আসামির অবস্থান নিশ্চিত করে মান্দা থানা পুলিশের সহযোগিতায় আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

ভুক্তভোগীর শিশুর বাবা জানান, মামলার পর থেকেই আসামির পরিবার আমাদের বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দিচ্ছিল। অবশেষে পুলিশ আসামিকে গ্রেফতার করেছে। এখন ন্যায়বিচার পাব এমন প্রত্যাশা করছি।

খাবারের লোভ দেখিয়ে শিশুকে নিপীড়ন, গ্রেফতার বৃদ্ধ

 রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি 
০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৫৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নওগাঁর রাণীনগরে খাওয়ার জিনিস দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে বাড়িতে ডেকে নিয়ে তিন বছর বয়সি এক শিশুকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মামলার ২৭ দিন পর অভিযুক্ত শফির মোল্লাকে (৬০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

সোমবার বিকালে মান্দা উপজেলার জশোপাড়া গ্রাম এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃত শফির মোল্লা রাণীনগর উপজেলার জালালাবাদ গ্রামের মৃত অতি মোল্লার ছেলে।

মামলাসূত্রে জানা যায়, গত ৬ নভেম্বর দুপুরে শিশুটি বাড়ির পাশে খেলা করছিল। এ সময় প্রতিবেশী শফির মোল্লা শিশুকে খাওয়ার জিনিস দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে বাড়ির ভেতরে ডেকে নিয়ে শিশুকে নানাভাবে যৌন নিপীড়ন করে। শিশুটির চিৎকার শুনে তার মা অভিযুক্তের বাড়িতে প্রবেশ করলে তাকে গালাগাল করে বের করে দেয়। পরে বাড়ি গিয়ে শিশুটি যন্ত্রণায় কান্না করতে করতে তার মাকে বিষয়টি খুলে বলে। ওই দিন শিশুটিকে প্রথমে রাণীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রেফার্ড করে। পরে ১০ নভেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সংবাদ পেয়ে রাণীনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিশুর বাবা বাদী হয়ে শফির মোল্লাকে আসামি করে ৮ নভেম্বর রাণীনগর থানায় যৌন নিপীড়নের মামলা করেন। 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রাণীনগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাজমুল হক বলেন, ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত শফির মোল্লা পলাতক ছিলেন। গোপন সূত্রে আসামির অবস্থান নিশ্চিত করে মান্দা থানা পুলিশের সহযোগিতায় আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

ভুক্তভোগীর শিশুর বাবা জানান, মামলার পর থেকেই আসামির পরিবার আমাদের বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দিচ্ছিল। অবশেষে পুলিশ আসামিকে গ্রেফতার করেছে। এখন ন্যায়বিচার পাব এমন প্রত্যাশা করছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন