শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে যুবকের আত্মহত্যা
jugantor
শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

  রাজশাহী ব্যুরো  

০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৫২:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীতে শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন দিয়ে মো. রাফি (২৪) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। রাফি নগরীর হেতেম খাঁ এলাকার মো. বাবলুর ছেলে। তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন।

বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মাঠে শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন রাফি। মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা তা দেখে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান। পরে বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়। রাফির মা রামেক হাসপাতালের একজন আয়া।

হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের প্রধান ডা. আফরোজা নাজনীন জানান, আগুনে রাফির শরীরের ৯০ শতাংশের বেশি পুড়ে গিয়েছিল। হাসপাতালে নেওয়ার ঘণ্টা দুয়েক পরেই তার মৃত্যু হয়। রাত ১টার দিকে পরিবারের সদস্যরা লাশ বাড়ি নিয়ে গিয়ে দাফন করেন।

ডা. আফরোজা নাজনীন আরও জানান, তার মা জানিয়েছেন রাফি মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। কোথাও কাজে যোগ দিলেও করতে পারতেন না। চার-পাঁচ বছর ধরে মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের কাছে তার চিকিৎসা চলছিল। মানসিক অসুস্থতার কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

নগরীর রাজপাড়া থানার ওসি এএসএম সিদ্দিকুর রহমান বলেন, রাতে রাফির নিজের শরীরে প্যাট্রোল ঢেলে আগুন দেওয়া এবং তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা পর্যন্ত জানি। পরে ছেলেটা মারা গেছে কিনা তা জানি না। খোঁজ নিয়ে জানাতে হবে।

শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

 রাজশাহী ব্যুরো 
০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীতে শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন দিয়ে মো. রাফি (২৪) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। রাফি নগরীর হেতেম খাঁ এলাকার মো. বাবলুর ছেলে। তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন।

বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মাঠে শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন রাফি। মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা তা দেখে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান। পরে বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়। রাফির মা রামেক হাসপাতালের একজন আয়া।

হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের প্রধান ডা. আফরোজা নাজনীন জানান, আগুনে রাফির শরীরের ৯০ শতাংশের বেশি পুড়ে গিয়েছিল। হাসপাতালে নেওয়ার ঘণ্টা দুয়েক পরেই তার মৃত্যু হয়। রাত ১টার দিকে পরিবারের সদস্যরা লাশ বাড়ি নিয়ে গিয়ে দাফন করেন।

ডা. আফরোজা নাজনীন আরও জানান, তার মা জানিয়েছেন রাফি মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। কোথাও কাজে যোগ দিলেও করতে পারতেন না। চার-পাঁচ বছর ধরে মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের কাছে তার চিকিৎসা চলছিল। মানসিক অসুস্থতার কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

নগরীর রাজপাড়া থানার ওসি এএসএম সিদ্দিকুর রহমান বলেন, রাতে রাফির নিজের শরীরে প্যাট্রোল ঢেলে আগুন দেওয়া এবং তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা পর্যন্ত জানি। পরে ছেলেটা মারা গেছে কিনা তা জানি না। খোঁজ নিয়ে জানাতে হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন