আগামী জুনে কক্সবাজার-ঢাকা রেল চলবে: রেলমন্ত্রী
jugantor
আগামী জুনে কক্সবাজার-ঢাকা রেল চলবে: রেলমন্ত্রী

  কক্সবাজার প্রতিনিধি  

০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২১:৪৯:২২  |  অনলাইন সংস্করণ

রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, ২০২৩ সালের জুনের মধ্যে ঢাকা-কক্সবাজার রেল চলাচল শুরু হবে। বৃহস্পতিবার দোহাজারী-কক্সবাজার রেললাইন প্রকল্পের কক্সবাজার আইকনিক রেলওয়ে স্টেশনের নির্মাণকাজ পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রাধিকার প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়িত এটি চালু হলে দেশের পর্যটন খাতে ব্যাপক উন্নয়নসহ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে রাখবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

এ সময় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, প্রকল্প পরিচালক মুফিজুর রহমান, পদস্থ সরকারি কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে লিংক রোড মুহুরীপাড়া, রামু, ঈদগাহ ইসলামাবাদ সিঙ্গেল লাইন ডুয়েল গেজ ট্র্যাক পরিদর্শন করেন রেলমন্ত্রী।

চট্টগ্রামের দোহাজারী হয়ে কক্সবাজারের রামু থেকে ঘুমধুম পর্যন্ত ১০০ কিলোমিটার এই রেললাইন নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১৮ হাজার ৩৪ কোটি টাকা; যার শুরু হয় ২০১০ সালে।

চীনের দুটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশন, চায়না সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন করপোরেশন, বাংলাদেশের তমা কনস্ট্রাকশন কোম্পানি ও ম্যাক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড এ প্রকল্পের কাজ করছে।

২১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে কক্সবাজারে ঝিনুকের আদলে একটি আইকনিক রেলওয়ে স্টেশন ভবন নির্মিত হচ্ছে। ৬ তলাবিশিষ্ট এ ভবনে থাকবে প্রায় সব ধরনের সুবিধা।

আগামী জুনে কক্সবাজার-ঢাকা রেল চলবে: রেলমন্ত্রী

 কক্সবাজার প্রতিনিধি 
০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, ২০২৩ সালের জুনের মধ্যে ঢাকা-কক্সবাজার রেল চলাচল শুরু হবে। বৃহস্পতিবার দোহাজারী-কক্সবাজার রেললাইন প্রকল্পের কক্সবাজার আইকনিক রেলওয়ে স্টেশনের নির্মাণকাজ পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রাধিকার প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়িত এটি চালু হলে দেশের পর্যটন খাতে ব্যাপক উন্নয়নসহ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে রাখবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

এ সময় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, প্রকল্প পরিচালক মুফিজুর রহমান, পদস্থ সরকারি কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে লিংক রোড মুহুরীপাড়া, রামু, ঈদগাহ ইসলামাবাদ সিঙ্গেল লাইন ডুয়েল গেজ ট্র্যাক পরিদর্শন করেন রেলমন্ত্রী।

চট্টগ্রামের দোহাজারী হয়ে কক্সবাজারের রামু থেকে ঘুমধুম পর্যন্ত ১০০ কিলোমিটার এই রেললাইন নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১৮ হাজার ৩৪ কোটি টাকা; যার শুরু হয় ২০১০ সালে।

চীনের দুটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশন, চায়না সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন করপোরেশন, বাংলাদেশের তমা কনস্ট্রাকশন কোম্পানি ও ম্যাক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড এ প্রকল্পের কাজ করছে।

২১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে কক্সবাজারে ঝিনুকের আদলে একটি আইকনিক রেলওয়ে স্টেশন ভবন নির্মিত হচ্ছে। ৬ তলাবিশিষ্ট এ ভবনে থাকবে প্রায় সব ধরনের সুবিধা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন