অভিযানে গিয়ে আ.লীগ নেতার মৃত্যু, পুলিশের দাবি হার্টঅ্যাটাক
jugantor
অভিযানে গিয়ে আ.লীগ নেতার মৃত্যু, পুলিশের দাবি হার্টঅ্যাটাক

  বরিশাল ব্যুরো  

০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:২৪:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশাল নগরীতে মাদক বিক্রেতার বাসায় তল্লাশি অভিযানে সাক্ষী হিসেবে নেওয়া আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যু হয়েছে। পুলিশের দাবি, তিনি হার্টঅ্যাটাকে মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মৃত খলিল খান (৪৫) নগরীর পশ্চিম কাউনিয়া খানবাড়ির বাসিন্দা মোকসেদ আলী খানের ছেলে। তিনি নগরীর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

কাউনিয়া থানার এসআই সাইদুল হক জানান, আমিনবাড়ি এলাকার চিহ্নিত মাদক বিক্রেতা পংকজের বাসায় অভিযানে যান তারা। পংকজের ঘর তল্লাশি করা হবে। এ জন্য একজন স্থানীয় সাক্ষীর প্রয়োজন হয়। তখন স্থানীয় বাসিন্দা হিসেবে খলিল খানকে নিয়ে পংকজের বাসায় যান। তল্লাশি শুরু করার সময় বুকে ব্যথা ওঠে খলিলের। একপর্যায়ে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরিবারের বরাতে এসআই সাইদুল বলেন, খলিল খান হার্টের রোগী। দুবার তিনি হার্টঅ্যাটাক করেছেন। কয়েক দিন আগে ঢাকা থেকে চিকিৎসা করে ফিরেছেন। হার্টঅ্যাটাকে তার মৃত্যু হয়েছে। তাই পরিবার রাত ১০টার দিকে লাশ নিয়ে গেছে।

অভিযানে গিয়ে আ.লীগ নেতার মৃত্যু, পুলিশের দাবি হার্টঅ্যাটাক

 বরিশাল ব্যুরো 
০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:২৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশাল নগরীতে মাদক বিক্রেতার বাসায় তল্লাশি অভিযানে সাক্ষী হিসেবে নেওয়া আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যু হয়েছে। পুলিশের দাবি, তিনি হার্টঅ্যাটাকে মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মৃত খলিল খান (৪৫) নগরীর পশ্চিম কাউনিয়া খানবাড়ির বাসিন্দা মোকসেদ আলী খানের ছেলে। তিনি নগরীর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

কাউনিয়া থানার এসআই সাইদুল হক জানান, আমিনবাড়ি এলাকার চিহ্নিত মাদক বিক্রেতা পংকজের বাসায় অভিযানে যান তারা। পংকজের ঘর তল্লাশি করা হবে। এ জন্য একজন স্থানীয় সাক্ষীর প্রয়োজন হয়। তখন স্থানীয় বাসিন্দা হিসেবে খলিল খানকে নিয়ে পংকজের বাসায় যান। তল্লাশি শুরু করার সময় বুকে ব্যথা ওঠে খলিলের। একপর্যায়ে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরিবারের বরাতে এসআই সাইদুল বলেন, খলিল খান হার্টের রোগী। দুবার তিনি হার্টঅ্যাটাক করেছেন। কয়েক দিন আগে ঢাকা থেকে চিকিৎসা করে ফিরেছেন। হার্টঅ্যাটাকে তার মৃত্যু হয়েছে। তাই পরিবার রাত ১০টার দিকে লাশ নিয়ে গেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন