মেডিকেল ভর্তিতে দ্বিতীয় নিহাল শুধু ডাক্তার নয়, ভালো মানুষ হতে চান

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি 
১৩ মার্চ ২০২৩, ০৯:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় হয়েছেন নেত্রকোনার আসিফ রহমান নিহাল। তিনি শুধু ভালো চিকিৎসকই নয়; একজন ভালো মানুষও হতে চাই।

আসিফ রহমান নিহাল জেলার পূর্বধলা উপজেলার আগিয়া গ্রামের মো. মিজানুর রহমান ও আফরোজা বেগম দম্পতির বড় ছেলে। তারা এখন ময়মনসিংহ শহরের কিষ্টপুর দৌলত মুন্সি রোড এলাকায় বসবাস করেন।

আসিফ ছোটবেলা থেকেই পড়াশোনায় বেশ মনোযোগী ছিল। তিনি পঞ্চম শ্রেণিতে ময়মনসিংহ গভর্মেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুলে ভর্তি হন। ভর্তি পরীক্ষায়ও তিনি প্রথম হন। পরে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ময়মনসিংহ জিলা স্কুলে ভর্তি হয়ে সেখান থেকে এসএসসি পাশ করেন। তিনি এইচএসসি পাশ করেন আনন্দ মোহন কলেজ থেকে। ভালো ফলাফলের মাধ্যমে তিনি মা-বাবাকে প্রতিবারই গর্বিত করেছেন।

আজ সোমবার দুপুরে কথা হয় আসিফের বাবা মিজানুর রহমানের সঙ্গে।

তিনি জানান, আসিফের মা আফরোজার ইচ্ছা ছিল ছেলে চিকিৎসক হবেন। শেষমেশ মায়ের স্বপ্নই পূরণ হলো। তার (আসিফের) ছোট চাচা ওয়াহিদুর রহমান ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের নিউরো বিভাগের সহকারী অধ্যাপক।

আসিফের বাবা মিজানুর রহমান বলেন, ছোটবেলা থেকেই নিহাল (আসিফ) ভালো ছাত্র। তাই আমি তাকে লেখাপড়ায় কোনো চাপ দেইনি। আমি চাই ছেলে চিকিৎসক হোক আর অন্য কোনো পেশায় থাকুক, সে যেন একজন ভালো মানুষ হয়।

ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় হওয়া আসিফ রহমান জানান, কলেজে ভর্তির পর থেকেই মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে শুরু করেন তিনি। একাডেমিক পড়ালেখার পাশাপাশি ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতিও নিয়েছিলেন। ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় হতে পেরে তার ভালো লাগছে। ছোট চাচাকে দেখে চিকিৎসা পেশার প্রতি আমার বেশ আগ্রহ বাড়ে। আমার মাও সব সময় চাইতেন আমি যেন আমি মেডিকেলে পড়ি। তাই নবম শ্রেণিতে পড়াকালে আমার মনে হয়েছে আমাকে ভালো কিছু করতে হবে। নিউরোর বিষয়গুলো ভালো লাগে আমার তাই ভবিষ্যতে নিউরোসার্জন হতে চাই। শুধু ভালো চিকিৎসকই নয় একজন ভালো মানুষও হতে চাই।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন