নিহত ১৯ জনের মধ্যে ৮ জনের বাড়ি গোপালগঞ্জে

 গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি 
১৯ মার্চ ২০২৩, ১০:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মাদারীপুর জেলার শিবচরের কুতুবপুর এলাকায় পদ্মা সেতুর আগে এক্সপ্রেসওয়েতে ইমাদ পরিবহণের ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী বাস দুর্ঘটনায় ১৯ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে আটজনের বাড়ি গোপালগঞ্জে।

এদের মধ্যে নিহত বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী গোপালগঞ্জের আফসানা মিমির (২৬) বাড়িতে চলছে এখন শোকের মাতম। রোববার মিমির মৃত্যুর খবর তাদের গোপালগঞ্জ শহরের হীরাবাড়ি রোডের বাড়িতে এসে পৌঁছলে সেখানে এক শোকাবহ পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

নিহত অন্যরা হলেন- গোপালগঞ্জ শহরের সামচুল হক রোডের মাসুদ আলমের মেয়ে সুরভী আলম সুইটি (২২), গোপালগঞ্জ পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক অনাদী রঞ্জন মজুমদার (৫৪), বাসের সুপারভাইজার সদর উপজেলার মানিকদাহ গ্রামের মিজানুর রহমান বিশ্বাসের ছেলে মিনহাজুর রহমান বিশ্বাস (৪০), বাসের ড্রাইভার জাহিদ (৪২), গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বনগ্রামের মৃত শামসুদ্দিন শেখের ছেলে মোস্তাক শেখ (৪০) ও মুকসুদপুর উপজেলার আদমপুর গ্রামের আনজু খানের ছেলে মাসুদ খান (৩২)। দুর্ঘটনায় নিহত আরেকজনের নাম এখনো পাওয়া যায়নি।

ইমাম পরিবহণের ম্যানেজার সূত্রে জানা গেছে, খুলনা থেকে ছেড়ে যাওয়া ঢাকাগামী ইমাদ পরিবহণের বাসটিতে গোপালগঞ্জ জেলা থেকে ১৪ জন যাত্রী উঠেন। তবে তারা নিশ্চিত করতে পারেননি এর মধ্যে কতজন মারা গেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন