রাসিক নির্বাচনে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন মুরাদ মোরশেদ

  রাজশাহী ব্যুরো ০৪ জুলাই ২০১৮, ১৩:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

মেয়রপ্রার্থী মুরাদ মোরশেদ
ছবি- সংগৃহীত

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন (রাসিক) নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যাওয়ার পর আপিল করে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন দুই প্রার্থী। তাদের মধ্যে একজন হলেন মেয়রপ্রার্থী মুরাদ মোরশেদ, অন্যজন সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলরপ্রার্থী জিল্লুর রহমান।

বুধবার সকালে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন এ প্রার্থী। ফলে এখন নির্বাচন অংশ নিতে তার আর কোনো বাধা রইল না।

মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের প্রথম দিন ১ জুলাই গণসংহতি আন্দোলনের রাজশাহী জেলা আহ্বায়ক মেয়রপ্রার্থী অ্যাডভোকেট মুরাদ মোরশেদের প্রার্থিতা বাতিল ঘোষণা করেছিলেন রাসিক নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার সৈয়দ আমিরুল ইসলাম।

অন্যদিকে প্রার্থিতা ফিরে পাওয়া কাউন্সিলরপ্রার্থী জিল্লুর রহমান ১৭ নম্বর ওয়ার্ড থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের শেষ দিন ২ জুলাই তার প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছিল।

মনোনয়নপত্রে মুরাদ মোরশেদের সমর্থকের জাল স্বাক্ষর থাকার অভিযোগে তার প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছিল। আর জিল্লুর রহমান রাসিকের ঠিকাদার বলে প্রার্থিতা হারিয়েছিলেন।

তবে এ দুই প্রার্থী নির্বাচন কমিশনের এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমানের কাছে আপিল করেছিলেন। সেখানে নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তা ও প্রার্থীদের উপস্থিতিতে শুনানি শেষে তাদের বৈধ প্রার্থী বলে ঘোষণা করা হয়। ফলে নির্বাচনে অংশ নিতে তাদের কোনো বাধা থাকল না।

সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আতিয়ার রহমান জানান, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় এক মেয়র ও তিন কাউন্সিলরপ্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছিল। তবে মঙ্গলবার শুধু এ দুই প্রার্থী আপিল করেছিলেন। এ নিয়ে সকালে শুনানি হয়। সেখানে নিজেদের বৈধতার স্বপক্ষে প্রার্থীরা প্রমাণ দেখালে তাদের প্রার্থিতা বৈধ বলে ঘোষণা করা হয়।

রাসিক নির্বাচনে এখন মেয়র, সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মিলে মোট বৈধ প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়াল ২২৫ জন। এর মধ্যে মেয়র পদে ছয়জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৬৭ এবং সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে ৫২ প্রার্থী রয়েছেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থী মুরাদ মোরশেদ ছাড়া মেয়র পদের অন্য প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত ১৪ দলের প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, বিএনপি মনোনীত ২০ দলের মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, জাতীয় পার্টির ওয়াসিউর রহমান দোলন, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির হাবিবুর রহমান ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের শফিকুল ইসলাম।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, আগামী ৯ জুলাই পর্যন্ত প্রার্থীরা তাদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করতে পারবেন। পর দিন বরাদ্দ করা হবে প্রতীক। এর পর আনুষ্ঠানিক প্রচারে নামতে পারবেন প্রার্থীরা। নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হবে ৩০ জুলাই। রাসিকের ৩০টি ওয়ার্ডে এবার ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১৩৮টি।

ঘটনাপ্রবাহ : রাজশাহী-বরিশাল-সিলেট সিটি নির্বাচন ২০১৮

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter