পটুয়াখালীতে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি, অতঃপর...

  পটুয়াখালী (দক্ষিণ) প্রতিনিধি ১০ জুলাই ২০১৮, ১৮:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীতে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি, অতঃপর...
ছবি: যুগান্তর

পটুয়াখালীতে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছে তিন ব্যক্তি। এর মধ্য দুইজন পালিয়ে গেলেও মাসুদ খান (৩৫) নামে একজনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

সদর উপজেলার মাদারবুনিয়া ৫নং ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার তার ওয়ার্ডের চায়ের দোকানি মোশারেফ হোসেন মৃধা তার দোকানের প্রয়োজনীয় মালামাল কিনতে অটোরিকশাযোগে শহরের চৌরাস্তার পুলিশ বক্সের সামনে নামে। এ সময় পুলিশ বক্সের মধ্য বসে থাকা আনোয়ার, হাবিব ও মাসুদ খান নামে তিন যুবক বেড় হয়ে মোশারেফকে আটক করে বক্সের পেছনে নিয়ে যায়।

মোশারেফ নারীর ব্যবসা করে এমন ভয় দেখিয়ে তার কাছ থেকে সাড়ে ৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে মোশারেফ ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম ও সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাসির উদ্দিন হাওলাদারকে মোবাইল ফোনে অবহিত করলে হাসপাতাল চত্বরের এসে তাদের আটক করে এবং জিজ্ঞাসাবাদ করে।

এ সময় স্থানীয় উপস্থিত ব্যক্তি ও হাসপাতালের কর্মচারীদের হাতে তিন ব্যক্তি গণধোলাইয়ের শিকার হয়। গণধোলাইয়ের শিকার হয়ে আনোয়ার ও হাবিব পালিয়ে যায়। পরে মাসুদকে আটক করে সদর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। সাংবাদিক পরিচয়ধারী কেউ কোনো পরিচয়পত্র দেখাতে পারেনি।

এর আগেও উল্লিখিত ব্যক্তিরা বেশ কয়েকবার চাঁদাবাজি করতে গিয়ে গণধোলাইয়ের শিকার হয়।

এ প্রসঙ্গে সদর থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, পুলিশ মাসুদ নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। খোঁজখবর নিয়ে দেখছি কী করা যায়।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×