নেশার টাকার জন্য ২ মাসের শিশুকে আছড়িয়ে মারল বাবা
jugantor
নেশার টাকার জন্য ২ মাসের শিশুকে আছড়িয়ে মারল বাবা

  হবিগঞ্জ প্রতিনিধি  

১০ জুলাই ২০১৮, ২১:৪৪:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

হবিগঞ্জের লাখাইয়ে নেশার টাকার জন্য দুই মাস বয়সী শিশুকে হত্যা করেছে বাবা। পিটিয়ে আহত করেছে স্ত্রী ও ৯ বছর বয়সী স্কুলপড়ুয়া অন্য মেয়েকে। আর বাবার এমন হিংস্র আচরণ দেখে পালিয়ে রক্ষা পেয়েছে তার দুই ছেলে।

মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার মানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় মা ও মেয়েকে সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ঘাতক বাবাকে পুলিশ আটক করেছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ফুল জাহান জানান, তার স্বামী ওই গ্রামের সাইদুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরেই নেশায় আসক্ত। নেশার টাকার প্রয়োজন হলেই প্রায়ই তিনি পরিবারের সদস্যদের অত্যাচার করেন। মঙ্গলবার বিকালে হঠাৎ তার কাছে নেশার টাকা চান। তিনি তা দিতে অস্বীকার করায় ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন।

তিনি জানান, এ সময় ঘুমিয়ে থাকা দুই মাস বয়সী তার শিশুসন্তান ইকরা মনিকে তুলে আছাড় দেন। এতে সে গুরুতর আহত হয়। এছাড়া তাকে ও অপর মেয়ে স্থানীয় প্রাইমারি স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী মারিয়া আক্তারকে (৯) পিটিয়ে আহত করেন তিনি। তার এমন হিংস্র আচরণ দেখে ঘর থেকে পালিয়ে রক্ষা পায় তার অপর দুই ছেলে জনি (৮) ও রনি (১২)।

আশপাশের লোকজন এসে তাদের উদ্ধার করে সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুই মাস বয়সী শিশু ইকরা মনি মারা যায়।

লাখাই থানার ওসি মো. বজলার রহমান জানান, নেশার টাকার জন্য সে তার সন্তানকে আছাড় দিয়েছে। স্ত্রী ও অন্য মেয়েকে পিটিয়ে আহত করেছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটি মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ সাইদুল ইসলামকে আটক করেছে।

নেশার টাকার জন্য ২ মাসের শিশুকে আছড়িয়ে মারল বাবা

 হবিগঞ্জ প্রতিনিধি 
১০ জুলাই ২০১৮, ০৯:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হবিগঞ্জের লাখাইয়ে নেশার টাকার জন্য দুই মাস বয়সী শিশুকে হত্যা করেছে বাবা। পিটিয়ে আহত করেছে স্ত্রী ও ৯ বছর বয়সী স্কুলপড়ুয়া অন্য মেয়েকে। আর বাবার এমন হিংস্র আচরণ দেখে পালিয়ে রক্ষা পেয়েছে তার দুই ছেলে।

মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার মানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় মা ও মেয়েকে সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ঘাতক বাবাকে পুলিশ আটক করেছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ফুল জাহান জানান, তার স্বামী ওই গ্রামের সাইদুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরেই নেশায় আসক্ত। নেশার টাকার প্রয়োজন হলেই প্রায়ই তিনি পরিবারের সদস্যদের অত্যাচার করেন। মঙ্গলবার বিকালে হঠাৎ তার কাছে নেশার টাকা চান। তিনি তা দিতে অস্বীকার করায় ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন।

তিনি জানান, এ সময় ঘুমিয়ে থাকা দুই মাস বয়সী তার শিশুসন্তান ইকরা মনিকে তুলে আছাড় দেন। এতে সে গুরুতর আহত হয়। এছাড়া তাকে ও অপর মেয়ে স্থানীয় প্রাইমারি স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী মারিয়া আক্তারকে (৯) পিটিয়ে আহত করেন তিনি। তার এমন হিংস্র আচরণ দেখে ঘর থেকে পালিয়ে রক্ষা পায় তার অপর দুই ছেলে জনি (৮) ও রনি (১২)।

আশপাশের লোকজন এসে তাদের উদ্ধার করে সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুই মাস বয়সী শিশু ইকরা মনি মারা যায়।

লাখাই থানার ওসি মো. বজলার রহমান জানান, নেশার টাকার জন্য সে তার সন্তানকে আছাড় দিয়েছে। স্ত্রী ও অন্য মেয়েকে পিটিয়ে আহত করেছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটি মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ সাইদুল ইসলামকে আটক করেছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন