ঝিনাইদহে প্রাইভেটকারে মিলল ৪০ ভরি স্বর্ণ

  ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ১৩ জুলাই ২০১৮, ২১:০৯ | অনলাইন সংস্করণ

স্বর্ণ পাচারের অভিযোগে আটক শ্রীকান্ত পাল
স্বর্ণ পাচারের অভিযোগে আটক শ্রীকান্ত পাল। ছবি: যুগান্তর

ঝিনাইদহে প্রাইভেটকারে তল্লাশি চালিয়ে ৪০ ভরি স্বর্ণের বারসহ শ্রীকান্ত পাল নামে এক চোরাকারবারিকে আটক করেছে পুলিশ। জব্দকৃত স্বর্ণের মূল্য আনুমানিক ১৯ লাখ টাকা।

শুক্রবার বেলা দেড়টার দিকে ঝিনাইদহ-মাগুরা সড়কের পোড়াহাটি বাজারে প্রাইভেটকার আটক করে তল্লাশি চালানো হয়।

আটক শ্রীকান্ত পাল মন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান এলাকার সরোজচন্দ্র পালের ছেলে। তিনি নিজেকে ওই প্রাইভেটকারের চাল বলে দাবি করেছেন।

ঝিনাইদহ থানার ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, প্রাইভেটকারযোগে স্বর্ণ পাচারের খবর পেয়ে ঝিনাইদহ-মাগুরা সড়কের পোড়াহাটি বাজার থেকে চালকসহ একটি প্রাইভেটকার আটক করা হয়। প্রাইভেটকারটি থানায় এনে তল্লাশি করে ৪০ ভরি ওজনের একটি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। এ সময় প্রাইভেটকারের চালক শ্রীকান্ত পালকে গ্রেফতার করা হয়।

এ ঘটনার পর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ মিলু মিয়া, অতিরিক্ত সুপার সদর সার্কেল কনক কুমারসহ পদস্থ কর্মকর্তারা সদর থানায় যান। পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেহ মোহাম্মদ হাসনাতের উপস্থিতে উদ্ধার করা স্বর্ণ জব্দ করা হয় বলে জানান ওসি।

পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় সদর থানার এসআই মিন্টু লাল দাস বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। আটক শ্রীকান্ত পালকে ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বিকালে উদ্ধার করা স্বর্ণসহ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আটক ব্যক্তি শ্রীকান্ত পাল জানান, ঢাকার তাঁতিবাজার থেকে বিঞ্চুপদ নামের এক ব্যক্তি তাকে ওই স্বর্ণ দিয়ে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা শহরের অজ্ঞাতস্থানে পৌঁছিয়ে দিতে বলেন। তবে কতটুকু স্বর্ণ ছিল তা জানাতে পারেননি তিনি।

 

 

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter