‘আমার একমাত্র মেয়েকে আপনারা বাঁচান’

  নড়াইল প্রতিনিধি ১৫ জুলাই ২০১৮, ২০:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ

ব্লাড ক্যান্সার আক্রান্ত পূজা শিকদার
ব্লাড ক্যান্সার আক্রান্ত পূজা শিকদার। ছবি: যুগান্তর

নড়াইলের লোহাগড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির মেধাবী ছাত্রী পূজা শিকদার। ২০১৭ সালে নড়াইলের লোহাগড়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পঞ্চম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছিল সে।

পূজা শিকদার লোহাগড়া পৌর এলাকার মৃত রুপ কুমার শিকদারের এক মাত্র মেয়ে। পিতৃহীন মেয়েটির লেখাপাড়ার খরচ যোগাড় এবং সংসারের চাকা সচল রাখতে মা সুবর্ণা শিকদার মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঝিয়ের কাজ করেন।

সেই পূজা আজ মৃত্যু পথযাত্রী। মরণ ব্যাধি ব্লাড ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত। সে বাঁচতে চায়! তাকে বাঁচিয়ে তোলার জন্য বিত্তবানদের নিকট সাহায্যে আবেদন জানিয়েছে তার পরিবার।

জানা গেছে, পূজা শিকদারের শরীর দিন দিন শুকিয়ে আসছে। খাবারেও নেই তার কোনো রুচি। এমন অবস্থায় স্থানীয় ডাক্তারের কাছে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় তার পরিবার। পরীক্ষা নিরীক্ষা করে ৯ জুলাই ধরা পড়ে তার শরীরে মরণ ব্যাধি ব্লাড ক্যান্সার রোগ। আকাশ ভেঙ্গে পড়ে স্বজনদের মাথায়। দিশেহারা হয়ে পড়ে মা সুবর্ণা বিশ্বাস।

বর্তমানে পুজাকে উন্নত চিকিৎস্যার জন্য স্থানীয়দের সহযোগিতায় ঢাকার আনোয়ার খান মর্ডাণ হাসপাতালে ভর্তি করেছেন তার মা। সেখানে ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডা. কর্নেল মনিরুজ্জামানের তত্বাবধানে পুজা চিকিৎসাধীন আছে।

এ প্রসঙ্গে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এসএম হায়াতুজ্জামান যুগান্তরকে জানান, ‘আমি পুজাকে দেখতে ঢাকায় গিয়েছি। চিকিৎসকরা অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে তাকে সুস্থ করার চেষ্টা করছেন। পুজার বর্তমান অবস্থা জীবন-মৃত্যুর মাঝামাঝি। তার চিকিৎসায় প্রায় ৭-৮ লাখ টাকা খরচ হবে।’

পুঁজার মা সুবর্ণা শিকদার বিত্তবানদের নিকট আকুতি জানিয়ে বলেন,‘পরের বাড়ি কাজ করে আমার একমাত্র মেয়েকে কোনো রকম বড় করেছি। ঠিক মত তাকে পেট ভরেও খেতে দিতে পারিনি। পুজার ৫ বছর বয়সে তার বাবা বিদ্যুৎস্পর্শে মারা যায়। পিতৃহারা এই মেয়েকে চিকিৎসা করানোর মতো অর্থ আমার নেই। দেশবাসীর নিকট আমার আবেদন ‘আমার একমাত্র মেয়েকে আপনারা বাঁচান’।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter