বগুড়ায় নারীকে মাদক দিয়ে গ্রেফতারের অভিযোগ, এসআইকে আদালতে তলব

  বগুড়া ব্যুরো ১৭ জুলাই ২০১৮, ২২:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

বগুড়া ম্যাপ

বগুড়া সদর থানার এক এসআইয়ের বিরুদ্ধে টাকা না পেয়ে ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়ে গৃহবধূকে গ্রেফতারের অভিযোগ উঠেছে। সাদা পোশাকে গভীর রাতে বাড়িতে ঢুকে স্বামী আবদুল হান্নানের কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ওই সময়ে গ্রেফতার শাবান বেগমের সাত মাসের দুগ্ধপোষ্য সন্তানকেও সঙ্গে দেয়া হয়নি।

মঙ্গলবার দুপুরে জামিন শুনানির সময় ওই গৃহবধূ জেলা জজের কাছে অভিযোগ করলে আদালত তাৎক্ষণিকভাবে সদর থানার ওসি এবং এসআই শাহাজাহানকে আদালতে তলব করেন। এ ব্যাপারে যথাযথ তদন্ত করে আগামী ২৪ জুলাইয়ের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

আদালতে উপস্থিত কয়েকজন আইনজীবী জানান, সদর থানার এসআই শাহজাহান গত রোজার মধ্যে রাত আড়াইটার দিকে সাদা পোশাকে বগুড়া শহরের চকসূত্রাপুর এলাকার আবদুল হান্নানের বাড়িতে যান। তিনি হান্নানের কাছে ৫ লাখ টাকা দাবি করে না পেয়ে মারপিট করেন। এরপর তার স্ত্রী শাবানা বেগমকে থানায় নিয়ে আসেন। তাকে ৫১ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার দেখিয়ে পরদিন আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠান।

অনেক অনুরোধ সত্ত্বেও তার সঙ্গে সাত মাসের দুগ্ধপোষা সন্তানকে দেয়া হয়নি। শাবানা জেলা জজ আদালতে জামিন প্রার্থনা করেন। মঙ্গলবার দুপুরে জামিন শুনানির সময় শাবানা বিষয়টি জেলা ও দায়রা জজ নরেশ চন্দ্র সরকারকে অবহিত করেন। আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে সঙ্গে সঙ্গে কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. শাহজাহানের মাধ্যমে সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান ও অভিযুক্ত এসআই শাহজাহানকে তলব করেন। পরে ওসি ও এসআই আদালতে হাজির হন।

গৃহবধূ এসআই শাহাজানকে দেখিয়ে অভিযানের দিন তিনি কোন পোশাকে ছিলেন তাও বলেন। এসআই শাহজাহান আত্মপক্ষ সমর্থন করে জানান, তিনি পোশাক পরা অবস্থায় অভিযান চালিয়ে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ওই নারীকে গ্রেফতার করেছেন। তার স্বামীকে মারপিট বা টাকা চাওয়া হয়নি।

এ সময় জেলা জজ বলেন, সরকার মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছেন। কিন্তু পুলিশের ক্ষমতার অপব্যবহারের কারণে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হওয়ার বিষয়টি মেনে নেয়া যায় না। এ সময় জেলা জজ সাদা পোশাকে অভিযান, স্বামীর কাছে টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে মাদক দিয়ে চালান দেয়ার অভিযোগটি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে তদন্ত করে আগামী ২৪ জুনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে সদর থানার ওসিকে নির্দেশ দেন।

সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান আদালতের নির্দেশের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, গত রোজার মধ্যে ওই গৃহবধূকে মাদকসহ গ্রেফতার করা হয়েছিল। তার বিরুদ্ধে কয়েকটি মাদক মামলা আছে। কিন্তু জামিন শুনানিতে ওই গৃহবধূ দাবি করেছেন, গ্রেফতারের সময় এসআই শাহজাহান সাদা পোশাকে ছিলেন। আর তার কাছে মাদক ছিল না। আদালতের নির্দেশে সুষ্ঠু তদন্ত করে যথাসময়ে প্রতিবেদন দেয়া হবে।

এ ব্যাপারে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত পিপি সাব্বির আহম্মেদ বিদ্যুৎ কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. শাহজাহান জানান, আদালত সদর থানার ওসি ও এসআইকে অন্য কারণে ডেকেছিলেন। কাউকে সাদা পোশাকে গ্রেফতার বা চাঁদা দাবির কারণে নয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন সরকারি কৌঁসুলি দাবি করেছেন, সদর থানার এসআই শাহজাহানের বিরুদ্ধে এমন আরও কয়েকটি অভিযোগ আছে, যা মাননীয় আদালতের নজরে এসেছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter