দিনাজপুরে শুধু ইংরেজিতেই ফেল করেছে ৩৯ হাজার ৪৬৫ জন

প্রকাশ : ২০ জুলাই ২০১৮, ১৩:১৭ | অনলাইন সংস্করণ

  দিনাজপুর প্রতিনিধি

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড। ছবি-সংগৃহীত

চলতি বছর এইচএসসি পরীক্ষায় দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে ফেল করেছে ৪৭ হাজার ৫৫৬ শিক্ষার্থী। এর মধ্যে শুধু ইংরেজিতেই ফেল করেছে ৩৯ হাজার ৪৬৫ জন। 

ইংরেজিতে অধিকাংশ পরীক্ষার্থী ফেল করার কারণেই এবার পরীক্ষায় ফল বিপর্যয় হয়েছে বলে জানিয়েছে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড থেকে এবার এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় এবং লাখ ১৯ হাজার ৫০৭ পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে পাস করেছে ৭১ হাজার ৯৫১ জন। 
অন্যদিকে ফেল করেছে ৪৭ হাজার ৫৫৬ জন। এর মধ্যে ইংরেজি বিষয়ে ফেল করেছে ৩৯ হাজার  ৪৬৫ জন এবং বাংলায় ৪ হাজার ৬২৪ জন। 

মোট ফেল করা ৪৭ হাজার ৫৫৬ শিক্ষার্থীর মধ্যে এক বিষয়ে ফেল করেছে ২৮ হাজার ৮৮২ জন এবং দুই বিষয়ে ফেল করেছে ১২ হাজার ২০৮ জন। বাকিরা ফেল করেছে দুইয়ের অধিক বিষয়ে। 
দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান যুগান্তরকে জানান, ইংরেজিতে এবার অধিকসংখ্যক পরীক্ষার্থী ফেল করার কারণে পাসের হার কমেছে। 

তিনি বলেন, অভিন্ন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে ইংরেজি বিষয়ে পরীক্ষা হয়েছে ভিন্ন সেটে। আর তুলনামূলক এই সেটের প্রশ্নপত্রটি ছিল কঠিন। এ কারণেই ইংরেজির ফল খারাপ হয়েছে। 

এবার প্রশ্নপত্র ফাঁস না হওয়ায় কোচিংনির্ভর পরীক্ষার্থীরা বেশি ফল খারাপ করেছে বলে জানান তোফাজ্জুর রহমান।

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের এই পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বলেন, আগামীতে ইংরেজিতে যাতে ফল খারাপ না হয়, সে জন্য শিক্ষকদের নিয়ে কর্মশালা করা হবে। 

এ ছাড়া যে ১২টি কলেজ থেকে একজন পরীক্ষার্থীও পাস করতে পারেনি এবং যেসব কলেজে ৩০ শতাংশের কম পাস করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান তিনি। 
উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে এক লাখ ১৯ হাজার ৫০৭ পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে পাস করেছে ৭১ হাজার ৯৫১ জন। পাসের হার ৬০ দশমিক ২১ শতাংশ। আর  জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ২৯৭ জন। 
এই বোর্ডের অধীনে রংপুর বিভাগের আট জেলায়  ৬৫৩ কলেজের মধ্যে ১২টি কলেজ থেকে কেউই পাস করতে পারেনি; আর শতভাগ পাস করেছে ১৪টি কলেজ থেকে।