নিরপেক্ষ ব্যক্তিদের নির্বাচন কর্মকর্তা করার দাবি বুলবুলের

প্রকাশ : ২৭ জুলাই ২০১৮, ১৮:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

  রাজশাহী ব্যুরো

গণসংযোগে বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। ছবি: যুগান্তর

‘নিরপেক্ষ ব্যক্তিদের’ নির্বাচন কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়ার পাশাপাশি নির্বাচনী এলাকায় সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন (রাসিক) নির্বাচনে ৯০ শতাংশ প্রিসাইডিং ও পোলিং অফিসার ‘আওয়ামী ঘরানার’ লোক থেকে বাছাই করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

তাদের মাধ্যমে ভোটের আগের রাতে নৌকায় সিল মারা ব্যালট ভোটকেন্দ্রে লুকিয়ে রাখা হতে পারে বলেও তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী।

শুক্রবার সকালে রাজশাহী নগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকায় গণসংযোগে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড তারা (ক্ষমতাসীনরা) করবেই। এ কারণে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি, সেনাবাহিনী নিয়োগ করে রাজশাহীতে নিরপেক্ষ ভোটের অবস্থা সৃষ্টি করা হোক। আগামী জাতীয় নির্বাচনে এটি জনগণের কাছে উপযুক্ত প্রমাণ হয়ে থাকবে।

বুলবুল বলেন, রাজশাহীর প্রতিটি আবাসিক হোটেল ও অন্যান্য আবাসস্থল ইতিমধ্যে দখল করে নিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। রাজশাহীর সব মেস থেকে শিক্ষার্থীদের বের করে দিয়েছে। এমনকি পুলিশ ভোটের দিনের আগের রাতে ব্যালটপেপারে নৌকার পক্ষে সিল মেরে বাক্সবন্দি করে রাখার ষড়যন্ত্র করছে।

এসব অবৈধ কার্যক্রম যেন কেউ করতে না পারে এবং তা কঠোর হস্তে দমন করার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি অনুরোধ করেন তিনি। একইসঙ্গে ভোটকেন্দ্রের জন্য ব্যবহৃত প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সার্চলাইট সংযোগ করার জন্য কর্তৃপক্ষের নিকট দাবি জানান বুলবুল।

গণসংযোগকালে বুলবুলের সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন, রাজপাড়া থানা বিএনপির সভাপতি শওকত আলী, সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন, তানোর পৌরসভার মেয়র মিজানুর রহমানসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।