পীরগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে চাচা-ভাতিজা নিহত

প্রকাশ : ২৮ জুলাই ২০১৮, ১৯:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

  পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি

পীরগঞ্জে জমিজমা-সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে চাচা ও ভাতিজা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন, তাহিরপুর মজিলা গ্রামের চাচা রাজা মণ্ডল (৬০) ও ভাতিজা রফিকুল ইসলাম (৫০)।

শনিবার সকালে উপজেলার তাহিরপুর মজিলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ, গ্রামবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীর সূত্রে জানা গেছে, পীরগঞ্জ পৌরসভার তাহিরপুর মজিলা গ্রামে চাচা রাজা মণ্ডল ও তার ভাতিজা হারুন অর রশিদের মধ্যে জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। সম্প্রতি বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য এলাকাবাসী সালিশ বৈঠক করে। এতে রাজা মণ্ডল ১০ শতক জমি ভাতিজা হারুনকে ছেড়ে দেয়। এরপর হারুন জমিটি ভোগদখলও করে।  

কিন্তু একপর্যায়ে শনিবার রাজা মণ্ডল ওই সালিশের রায় না মেনে তার ছেড়ে দেয়া ওই জমি চাষ করতে গেলে হারুন তাকে বাধা দিলে সংঘর্ষ বাধে।  

এ সময় হারুন কোদাল দিয়ে চাচা রাজা মণ্ডলের মাথায় আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। আহত বাবাকে বাঁচাতে তার ছেলে সামছুল ইসলাম এগিয়ে এলে তাকেও হারুন কোদাল দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। এ দৃশ্য দেখে অপর ভাতিজা রফিকুল ইসলাম এগিয়ে এলে তাকেও কোদাল দিয়ে কুপিয়ে মাটিতে ফেলে দেয় হারুন।  

আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজা মণ্ডল ও রফিকুলকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং সামছুলকে পীরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সকাল ৯ টায় রাজা মণ্ডল ও বিকাল সাড়ে ৩টায় রফিকুল মারা যায়। ওই সংঘর্ষে আহত হারুনকেও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  

নিহতের ঘটনায় রাজা মণ্ডলের মেয়ে আরেফা বেগম পীরগঞ্জ থানায় ৩ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করলে পুলিশ চিকিৎসাধীন অবস্থায় হারুনকে গ্রেফতার করে।  

থানার ওসি রেজাউল করিম জানান, নিহত রাজার মেয়ে ৩ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়েরে করলে প্রধান আসামি হারুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।