এতক্ষণ লাইনে দাঁড়াইয়া ভোট দিতে পারলাম না...
jugantor
এতক্ষণ লাইনে দাঁড়াইয়া ভোট দিতে পারলাম না...

  বরিশাল ব্যুরো  

৩০ জুলাই ২০১৮, ২০:৩৪:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রায় ৩০ মিনিট রোদের মধ্যে দাঁড়িয়ে ছিলাম। পরে ভোটার তালিকা দেখে অফিসার মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরের মোট ৩টি ব্যালট দিলেন। হঠাৎ পাশে দাঁড়িয়ে থাকা এক যুবক ছেলে আমার হাত থেকে টান মেরে মেয়র ও কাউন্সিলরের ব্যালটটি নিয়ে অফিসারের সামনেই সিল মেরে দিল।

অফিসার কিছুই বললে না। আমার হাতে থাকার অপর ব্যালটটিও ছুরে ফেলে দিয়ে চলে এসেছি। এতক্ষণ রোদে পুরে লাইনে দাঁড়িয়ে কি লাভ হলো। ভোট দিতে পারলাম না।

সোমবার ভোট দিতে না পাড়া সেলিনা আহমেদ নামে প্রায় ৬৫ বছরের বৃদ্ধা এভাবেই অভিযোগ করেন।

ঘটনাটি সকাল ১০টায় নগরীর অক্সফোর্ড মিশন হাইস্কুল ভোটকেন্দ্রে ঘটে। শুধু এই কেন্দ্রেই নয়, নগরীর প্রায় প্রতিটি কেন্দ্রে একই চিত্র পাওয়া গেছে।

এতক্ষণ লাইনে দাঁড়াইয়া ভোট দিতে পারলাম না...

 বরিশাল ব্যুরো 
৩০ জুলাই ২০১৮, ০৮:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রায় ৩০ মিনিট রোদের মধ্যে দাঁড়িয়ে ছিলাম। পরে ভোটার তালিকা দেখে অফিসার মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরের মোট ৩টি ব্যালট দিলেন। হঠাৎ পাশে দাঁড়িয়ে থাকা এক যুবক ছেলে আমার হাত থেকে টান মেরে মেয়র ও কাউন্সিলরের ব্যালটটি নিয়ে অফিসারের সামনেই সিল মেরে দিল।

অফিসার কিছুই বললে না। আমার হাতে থাকার অপর ব্যালটটিও ছুরে ফেলে দিয়ে চলে এসেছি। এতক্ষণ রোদে পুরে লাইনে দাঁড়িয়ে কি লাভ হলো। ভোট দিতে পারলাম না।

সোমবার ভোট দিতে না পাড়া সেলিনা আহমেদ নামে প্রায় ৬৫ বছরের বৃদ্ধা এভাবেই অভিযোগ করেন।

ঘটনাটি সকাল ১০টায় নগরীর অক্সফোর্ড মিশন হাইস্কুল ভোটকেন্দ্রে ঘটে। শুধু এই কেন্দ্রেই নয়, নগরীর প্রায় প্রতিটি কেন্দ্রে একই চিত্র পাওয়া গেছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন