সাতক্ষীরায় শিক্ষার্থীদের কর্মসূচি থেকে ছাত্রীসহ আটক ৪

প্রকাশ : ০৪ আগস্ট ২০১৮, ১৯:১৫ | অনলাইন সংস্করণ

  কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি

থানায় মানববন্ধন থেকে আটক ছাত্রীসহ ৪ শিক্ষার্থীরা। ছবি: যুগান্তর

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধন করার সময় শেখ আমানুল্লাহ ডিগ্রি কলেজের ছাত্রীসহ ৪ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার দুপুর ২টার দিকে কলেজের সামনে সাতক্ষীরা-ঢাকা মহাসড়কের পাশে মানববন্ধন করার চেষ্টাকালে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃত শিক্ষার্থীরা হলেন, শেখ আমানুল্লাহ ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের (বিজ্ঞান) ছাত্র সিহাবুল হাসান, একই বিভাগের মেহেদী হাসান, সাইদ বাশার ও সানজানা তৌফিকী।

কলেজের মাহামুদুর রহমান, রেজাউল হোসেন, মুজাহিদুল ইসলামসহ দ্বিতীয় বর্ষের কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, দেশব্যাপী নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্রছাত্রীরা আন্দোলন করছে। কলারোয়া শেখ আমানুল্লাহ ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থীরা এ যৌক্তিক দাবির পক্ষে দুপুর ২টার দিকে কলেজের সামনে সাতক্ষীরা-ঢাকা মহাসড়কের পাশে মানববন্ধন করার জন্য দাঁড়ানোর সময় কলারোয়া থানা পুলিশ এসে তাদের মানববন্ধন কর্মসূচি করতে নিষেধ করে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে বলে।

এ সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে পুলিশ ধাওয়া দিলে ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।

পরে কলেজের সামনে থেকে ছাত্রীসহ ৪ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

কলারোয়া শেখ আমানুল্লাহ ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মনিরা খাতুন জানান, আমিসহ কলেজের একাধিক শিক্ষক ছাত্রছাত্রীদের মানববন্ধন করতে নিষেধ করেছি। তারপরও কিছু ছাত্রছাত্রী একত্র হয়ে কলেজের সামনে মানববন্ধন করার সময় পুলিশের সঙ্গে বাগ্বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ায় এ ঘটনার সৃষ্টি হয়েছে। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের দায়ী করেছেন তিনি।

কলারোয়া থানার ওসি মারুফ আহম্মেদ চার শিক্ষার্থী আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। এ সময় আইনশৃঙ্খলা শান্ত রাখা ও ছাত্রদের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষের আশঙ্কায় তাদের কর্মসূচি বন্ধ করতে বাধ্য হয়ে চারজনকে আটক করা হয়েছে।

ওসি আরও জানান, আটক ছাত্রছাত্রীদের অবিভাবকদের খবর দেয়া হয়েছে। তারা এসে শিক্ষার্থীদের নিয়ে যাবেন।

এ ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে উপজেলার বিভিন্ন কলেজ ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অবিভাবকদের মধ্যে চরম উত্তেজনার বিরাজ করছে।