স্থগিত দুই কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের আগেই বিজয়ী ঘোষণার দাবি আরিফুলের

প্রকাশ : ০৯ আগস্ট ২০১৮, ১৬:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

  সিলেট ব্যুরো

ছবি: যুগান্তর

স্থগিত থাকা দুটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের আগেই বিজয়ী ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন সিলেট সিটি নির্বাচনে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ কে এম নুরুল হুদার সঙ্গে দেখা করে এই দাবি জানান তিনি।

এসময় তার সঙ্গে ছিলেন বিএনপির মেয়র প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট ও কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা ডা. শাহরিয়ার হোসেন চৌধুরী, বিএনপি নেতা মিফতাহ সিদ্দিকী ও এমরান আহমদ চৌধুরী।

এর আগে বুধবার বিকেলে সিলেটের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামানের কার্যালয়ে হাজির হয়ে লিখিতভাবে একই দাবি জানান তিনি।

গত ৩০ জুলাই সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ২টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন।

স্থগিত হওয়া গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১১ আগস্ট ফের ভোটের তারিখ নির্ধারণ করে নির্বাচন কমিশন।

কেন্দ্র দুটিতে ভোটগ্রহণের তিন দিন আগে গত বুধবার সিলেট আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশনের কার্যালয়ে হাজির হয়ে ওই দুই কেন্দ্রের মৃত ও প্রবাসী ভোটারদের তালিকা জমা দেন আরিফ।

মৃত ও প্রবাসী ভোটাররা ১১ তারিখে ভোটকেন্দ্রে হাজির হতে পারবেন না উল্লেখ করে আরিফ বলেন, তারা অনুপস্থিত থাকলে নির্বাচন ছাড়াই আমি জয়ী হয়ে যাই। ফলে ভোটের আগেই নিজেকে বিজয়ী ঘোষণার দাবি জানান আরিফ।

গত ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিত সিলেট সিটি নির্বাচনে ১৩২টি কেন্দ্রের ভোট গণনায় বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী ৯০ হাজার ৪৯৬ ভোট পেয়ে এগিয়ে আছেন।

নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান পান ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট।

ফলে বিএনপির মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর চেয়ে চার হাজার ৬২৬ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন। স্থগিত দুই কেন্দ্রে ভোট সংখ্যা চার হাজার ৭৮৭।

তবে নির্বাচনের আগেই কাউকে বিজয়ী ঘোষণা করার আইন নেই বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামান। ভোটার তালিকা নিয়ে কথা বলাও তার এখতিয়ারবর্হিভূত বলে জানান তিনি।