ফেরি সংকট

শরীয়তপুর ফেরিঘাটে দীর্ঘ যানজট, ভোগান্তি

প্রকাশ : ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১১:০২ | অনলাইন সংস্করণ

  শরীয়তপুর প্রতিনিধি

ছবি- যুগান্তর

শরীয়তপুর-চাঁদপুর রুটের নরসিংহপুর ফেরিঘাটে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোর থেকে শরীয়তপুর-চাঁদপুর মহাসড়কের আলুবাজার এলাকা থেকে শুরু করে খায়েরবাজার ফেরিঘাট পর্যন্ত প্রায় চার কিলোমিটার সড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। এতে উভয় পাড়ে আটকা পড়েছে দুই শতাধিক যানবাহন। 

এ ব্যাপারে নরসিংহপুর ফেরিঘাটের  বিআইডব্লিউটিসির ম্যানেজার আ. সাত্তার বলেন, গত দুদিন ধরে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে নদীর নাব্য সংকটের কারণে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় নরসিংহপুর ফেরিঘাটে যানবাহনের চাপ বেড়ে যায়। ফলে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার শত শত যাত্রীবাহী বাস, গরুবাহী ট্রাক ও মালবাহী ট্রাক, বিশেষ করে কোরবানি উপলক্ষে শত শত গরুর ট্রাক শরীয়তপুর-চাঁদপুর নরসিংহপুর ফেরি পার হয়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাতায়াত শুরু করে। 

নরসিংহপুর ঘাটে ফেরি করবী ও কুসুমকলী মাত্র দুটি ফেরি দিয়ে গাড়ি পারাপার করা সম্ভব হয়ে উঠছে না। ফলে দুই কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট দেখা দিয়েছে। 

ফেরিঘাট থেকে আবুল খায়ের পর্যন্ত দীর্ঘ যানজটে প্রায় ২০০ গাড়ি কাঁচামাল ও গরুসহ যাত্রীবাহী বাস নিয়ে আটকা পড়ে বিপাকে পড়েছেন যাত্রী ও মালামাল বহনকারী গাড়িচালকরা। জরুরি ভিত্তিতে নরসিংহপুর ঘাটে ফেরির সংখ্যা বাড়িয়ে যানজট কমানোর দাবি করা হয়েছে। ফেরির সংখ্যা না বাড়লে ঈদ সামনে রেখে মানুষের চরম ভোগান্তি হবে।

বাসযাত্রী শিহাবুল বলেন, নরসিংহপুর ফেরিঘাটে যে যানজট দেখা দিয়েছে তাতে আমরা দুদিনেও পার হতে পারব না। আমাদের খাওয়া, থাকা ও গোসলের খুবই সমস্যা হচ্ছে। জরুরি ভিত্তিতে ফেরি বাড়িয়ে দেয়া উচিত। 

ট্রাকচালক আ. খালেক বলেন, ঈদ সামনে রেখে গরুর গাড়ি নিয়ে চট্টগ্রাম যাব। নরসিংহপুর ফেরিঘাটে এসে আটকা পড়েছি। কবে যেতে পারব জানি না। গরু নিয়ে খুবই সমস্যায় আছি। 

সখীপুর থানার ওসি মো. মনজুরুল হক আকন্দ বলেন, কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি বন্ধ থাকায় নরসিংহপুর ঘাটে যানজট দেখা দিয়েছে। মাত্র দুটি ফেরি দিয়ে এত গাড়ি পারাপার সম্ভব হচ্ছে না। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।