কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে আবারো ফেরি চলাচল ব্যাহত

  শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি ২৫ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে আবারো ফেরি চলাচল ব্যাহত
ছবি: যুগান্তর

নাব্যসংকটের কারণে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। বন্ধ রয়েছে রো-রো ও ডাম্প ফেরি চলাচল। শুধুমাত্র কে-টাইপ ও মিডিয়াম ছয়টি ফেরি চলছে। নাব্যসংকট কাটিয়ে উঠে ঈদের আগে যেখানে ১৭টি ফেরি চলছিল সেখানে ঈদের পরে চলছে মাত্র ছয়টি। এ কারণে ঈদে কর্মস্থলে ফিরতি মানুষ কাঁঠালবাড়ি ঘাটে চরম বিড়ম্বনার শিকার হয়ে পড়েছে।

কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাটে অটকে রয়েছে প্রায় সহস্রাধিক যানবাহন। এর মধ্যে প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাসের সংখাই বেশি।

এর মধ্যে পণ্যবাহী অনেক ট্রাক রয়েছে সেগুলো প্রায় ১৫ দিন ধরে আটকে আছে পারাপারের অপেক্ষায়। এদিকে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই মোটরসাইকেল আরোহীরা ট্রলারে পারাপার হচ্ছেন।

বিআইডব্লিউটিএ’র কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র জানায়, ঈদের দুই সপ্তাহ আগে নাব্যসংকট চরম আকার ধারণ করে। প্রথম দিকে সব ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। পরে শুধুমাত্র ছোট ফেরি চলাচল শুরু করে। নাব্যসংকট ফিরিয়ে আনতে খননকাজ চালিয়ে ঈদের তিন-চার দিন আগে সব ফেরি চলাচল কিছুটা স্বাভাবিক হয়। ঈদের পর ফের লৌহজং টার্নিং পয়েন্টের চ্যানেল মুখে ফের দেখা দিয়েছে নাব্যসংকট। শুক্রবার রাতে সব ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। তবে শনিবার সকাল থেকে শুধুমাত্র কে-টাইপ ফেরিগুলো চলছে।

এদিকে ঈদের শেষে মানুষ রাজধানী ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছে। রোববার থেকে রাজধানীতে ফেরার ঢল নামবে এ নৌরুটে। এর মধ্যে নাব্যসংকটের কারণে ফেরি চলাচলে অচলাবস্থা সৃষ্টি হওয়ায় দুর্ভোগ বাড়বে যাত্রীদের এমন আশঙ্কা করছেন ঘাটসংশ্লিষ্টরা।

আটকেপড়া যাত্রীরা জানান, শুক্রবার সারারাত ফেরি চলে নাই। সকালে কাঁঠালবাড়ী ফেরিঘাটে বিশাল যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। সকাল থেকেই ফেরি চলে না। পদ্মা ও কিছুটা উত্তাল। লঞ্চ ও স্পিডবোটে চড়তে চান না। পরিবারের সবাইকে নিয়ে ঈদ শেষে ঢাকা রওনা দেয়ায় কোনো প্রকার ঝুঁকি নিতে চান না।

বরিশাল থেকে আসা রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স যাত্রী ফাহিম জানান, বরিশাল মেডিকেল থেকে মুমূর্ষু রোগী নিয়ে সকাল থেকে কাঁঠালবাড়ী ঘাটে এসে পৌঁছেছি। ঘাটে এসে দেখি ফেরি চলে না। কিছুক্ষণ পরপর দু-একটি চলে তাতে পাল্লা করে অন্যরা উঠে পড়ে। রোগীর অবস্থাও খারাপ, কোনোভাবেই পদ্মা পাড়ি দিতে পারছি না।

বিআইডব্লিউটিএর শিমুলিয়া ঘাটের মেরিন কর্মকর্তা আহম্মদ আলী বলেন, কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটের ফেরি চলাচলের অবস্থা ভালো নয়। রোরো ও ডাম্প ফেরি বন্ধ রয়েছে। নাব্যসংকট আবারো দেখা দিয়েছে।

কাঁঠালবাড়ী ঘাটের ব্যবস্থাপক আব্দুস সালাম মিয়া বলেন, নাব্যসংকটের কারণে সকাল থেকে শুধুমাত্র কে-টাইপ ফেরি অল্প যানবাহন নিয়ে চলাচল করছে।

অপরদিকে শনিবার দুপুরে মাদারীপুর নিজ এলাকা থেকে ঈদ শেষে ঢাকা

ফেরার পথে কাঁঠালবাড়ী ফেরিঘাট এলাকায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, নাব্যসংকটে ফেরিতে কিছুটা সমস্যা হচ্ছে। পানি কমতে থাকায় শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে নাব্যসংকটে সমস্যা সৃষ্টি হয়। তবে পাটুরিয়া দৌলতদিয়ায় কোনো সমস্যা নেই। নাব্য পরিস্থিতি উন্নয়নে ৮টি ড্রেজার কাজ করছে। আশা করি, আগামীকাল সকাল থেকে সব ফেরি চলবে।

শাজাহান খান বলেন- দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলো থেকে ছেড়ে আসা লঞ্চগুলোতে কঠোর নজরদারি রয়েছে। ফলে কোনো সমস্যা হবে না। ঘাটগুলোতে স্থানীয় প্রশাসন, বিআইডব্লিউটিএ, পুলিশ ও র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত রয়েছে। ঢাকা থেকে যাত্রীরা যেভাবে নির্বিঘ্ন বাড়ি পৌঁছেছে একইভাবে তারা কাজে ফিরতে পারবেন। ইনশাআল্লাহ কোনো সমস্যা হবে না।

এ সময় বিআইডব্লিউটিএ, বিআইডব্লিউটিসির কর্মকর্তারা ছাড়াও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান আহমেদ, শিবচর থানার ওসি জাকির হোসেন মোল্লা, সদর থানার ওসি কামরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter