ক্ষেত থেকে তুলে নিয়ে কৃষককে দিনভর নির্যাতন!

  ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি ২৮ আগস্ট ২০১৮, ১৮:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

ক্ষেত থেকে তুলে নিয়ে কৃষককে দিনভর নির্যাতন!
ক্ষেত থেকে তুলে নিয়ে কৃষককে দিনভর নির্যাতন! ছবি: যুগান্তর

ছাতকে ক্ষেত থেকে তুলে নিয়ে হাত-পা বেঁধে এক কৃষককে দিনভর নির্যাতনের ঘটনায় ৯ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনার পর আসামিরা আত্মগোপনে রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গত রোববার ছাতক সদর ইউনিয়নের রাতগাঁও গ্রামে দিনদুপুরে জমি থেকে ধরে এনে কৃষক সুনু মিয়াকে পিলারের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করা হয়।

ঘটনার প্রায় ৬ ঘণ্টা পর স্থানীয় লোকজন নির্যাতিত সুনু মিয়াকে উদ্ধার করে ছাতক হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে।

জানা যায়, জমিসংক্রান্ত বিষয় নিয়ে রাতগাঁও গ্রামের মৃত নুর উদ্দিনের ছেলে কৃষক সুনু মিয়ার সঙ্গে একই গ্রামের আজমান আলীর ছেলে নজির উদ্দিন ও ছমির উদ্দিনের ছেলে রুহেল মিয়ার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে।

প্রায় এক মাস আগে তাদের ক্ষেতের জমিসংক্রান্ত বিরোধটি এলাকার লোকজনদের নিয়ে নিষ্পত্তি করে দেন ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম। গত রোববার দুপুরে সুনু মিয়া রোপণকৃত জমি দেখাশোনা করতে গেলে প্রতিপক্ষের লোকজন তার ওপর হামলা চালিয়ে তাকে আহত করে।

একপর্যায়ে তার হাত-পা বেঁধে তাকে টেনেহিঁচড়ে নজির উদ্দিনের বাড়ির আঙিনায় এনে একটি পিলারের সঙ্গে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় দিনভর শারীরিক নির্যাতন চালায়। ওই দিন বিকালে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় নির্যাতিত কৃষক সুনু মিয়া সোমবার রাতে বাদী হয়ে একই গ্রামের রুবেল মিয়া, মনির উদ্দিন, নজির উদ্দিন, সুলতান আলী, তাজ উদ্দিন, সুরুজ আলী, জয়নাল আবেদীনসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় এখনো কোনো আসামি গ্রেফতার হয়নি।

এ ব্যাপারে ওসি আতিকুর রহমান জানান, মামলার পর থেকে আসামিরা আত্মগোপনে রয়েছে। তাদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রাখা হয়েছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter