ভাঙ্গায় আ'লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

প্রকাশ : ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

  টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত আওয়ামী লীগ কর্মীরা। ছবি: যুগান্তর

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এমপি মুজিবুর রহমার চৌধুরী নিক্সন ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরউল্লাহর সমর্থকদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। এতে পুলিশসহ উভয় গ্রুপের অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। আহতদের রাজৈর ও ভাঙ্গা  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন, মারাত্মক আহত মো. জামাল (৩০), মুন্নু শেখ (৩৮), তাজেল শেখ (৩৪), উমার শেখ (৩০), আ. আজিজ (১৫), মিলন (২৫), আরিফ শেখ (৩৫), জেন্না শেখসহ (৫৫) ১৫ জনকে রাজৈর হাসপাতালে। এছাড়া ভাঙ্গা থানার উপপুলিশ পরিদর্শক হাবিবুর রহমান শেখসহ (৪০)  মানিক মোল্লা (৪০), সাফায়েত মুন্সি (১৮), জিয়ারুল শেখ (২৮), মজিবর শেখ (৪৮), আবুল শেখ (৭০), মো. হাচান শেখ (২৫), নাজমুল (২৮), জাহাঙ্গীর (৪২), আব্দুল আলী (৬৫), সোহেল (২৭), রোজি বেগমকে (৬০) ভাঙ্গা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার সকালে উপজেলার ঘারুয়া ইউনিয়নের হাজরাকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

পুলিশ, হাসপাতাল ও এলাকাবাসী জানায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ফুটবল খেলা এবং পাট শুকানো নিয়ে ঈদুল আজহার আগেই থেকেই দুপক্ষের মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছিল। 

এরই জেরে এমপি মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সনের সমর্থক জুলহাস মেম্বার ও কাজী জাফরউল্লাহর সমর্থক বুলবুলের লোকজনের মধ্যে শনিবার সকালে কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতির একপর্যায়ে উভয় পক্ষই দেশীয় অস্ত্র নিয়ে এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। 

খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনতে ৭ রাউন্ড ফাকা গুলিবর্ষণ করে। এলাকায় চাপা উত্তেজনা থাকায় মোড়ে মোড়ে  পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। 

ভাঙ্গা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিরাজ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।