আগামী নির্বাচনে অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে শুভ সমাজ গড়তে হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

  ভোলা প্রতিনিধি ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ
ছবি: যুগান্তর

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, আগামী নির্বাচনে এক অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে শুভ সমাজ গড়ে তুলতে হবে। ওই অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। দেশের শান্তি ও উন্নয়নের জন্যই আগামীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় আনতে হবে।

রোববার বিকালে ভোলা শহরের বাংলাস্কুল মাঠে ৭ দিনব্যাপী ভগবান শ্রী কৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উৎসব ও বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না এলে ওরা (বিএনপি জামাট জোট) প্রথম দিনেই কয়েক লাখ মানুষকে হত্যা করবে। বন্ধ হয়ে যাবে সব উন্নয়নের ধারা। এ সময় মন্ত্রী আরও বলেন, ডিসেম্বরে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর ব্যতিক্রম কোনো কিছু হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

বাণিজ্যমন্ত্রী অশুভ শক্তির প্রসঙ্গ তুলে ধরে বলেন, বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করার পর এ দেশে অনেক পরিবর্তন করতে চেয়েছিল ওরা। দেশের অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিনষ্ট করেছে। দেশের শান্তি বিনষ্ট করেছে। অথচ ৩০ লাখ মানুষের রক্তের বিনিময়ে বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ উপহার দিয়েছিলেন। আমরা স্লোগান দিতাম জাগো জাগো বাঙালি জাগো। তুমি কে আমি কে? বাঙালি, বাঙালি। কে হিন্দু কে খ্রিস্টান, কে বৌদ্ধ এটা আমাদের পরিচয় ছিল না।

মুক্তিযুদ্ধের দিনগুলোর কথা স্মরণ করে মন্ত্রী বলেন, আমরা যুদ্ধ করেছি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার জন্য। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে ওরা ওই চেতনা বিনষ্ট করে ছিল। তাই ওদের ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। বাণিজ্যমন্ত্রী ৯২ ও ২০০১ সালের নির্বাচন পরবর্তী সময়ে বিএনপি-জামাত জোট সরকারের অত্যাচার নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরে বলেন, ওরা কোনো মানুষকে শান্তিতে ঘুমাতে দেয়নি। বহু মা-বোনের ইজ্জত নষ্ট করেছে। ওদের লুটপাট ও সন্ত্রাসের কথা মানুষ ভুলে যায়নি। সংখ্যালঘু বহু পরিবারকে ভিটেমাটি ছাড়া করেছে। আওয়ামী লীগের কোনো নেতাকর্মী সমর্থক এলাকায় থাকতে পারেনি। অথচ এখন বিএনপি নেতাকর্মী সবাই এলাকায় শান্তিতে বসবাস করছেন। রাজনীতি করছেন। ব্যবসা বাণিজ্য করছেন। কাউকে বাধা দেয়া হচ্ছে না।

এটা আওয়ামী লীগের ধর্ম বলেও মন্ত্রী উল্লেখ করে বলেন, তাই আগামীতে ফের আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে হবে। মন্ত্রী এ সময় দেশের উন্নয়ন ও ভোলার উন্নয়ন প্রসঙ্গও তুলে ধরেন।

এ সময় আরও উপস্থিত থাকার পাশাপাশি বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট সাংবাদিক পীর হাবিবুর রহমান, ভোলার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক, পুলিশ সুপার মো. মোকতার হোসেন, পৌর মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগ সিনিয়র সহসভাপতি দোস্ত মাহামুদ, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিব, উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার, জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার মো. সফিকুল ইসলাম, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি প্রফেসর দুলাল চন্দ্র ঘোষ, পূজা উদযাপন পরিষদের সম্পাদক গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শান্ত ঘোষসহ বিভিন্ন পূজামণ্ডপের সভাপতি সম্পাদকরা।

সকাল থেকে বিভিন্ন মন্দির থেকে বর্ণাঢ্য সাজে ব্যানার ফেস্টুনসহ হিন্দু ভক্তরা বাংলাস্কুল মাঠে জমায়েত হতে থাকেন। পরে একযোগে শোভাযাত্রা বের হয়। এ ছাড়া ইসকনের আয়োজনেও র‌্যালি বের হয়।

 

 

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter