নাটোরে দুর্ঘটনায় ১৫ জন নিহতের মামলায় চালক রিমান্ডে, সহকারীর জামিন

  বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

চ্যালেঞ্জার বাসের চালক শামীম হোসেন ও চালকের সহকারী আব্দুস সামাদ কমল

নাটোরের বড়াইগ্রাম ও লালপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী কমিদচিলান এলাকায় বাস-লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৫ জন নিহতের মামলায় আটক চ্যালেঞ্জার বাসের চালক শামীম হোসেনের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। একই সঙ্গে চালকের সহকারী আব্দুস সামাদ কমলকে জামিন দেয়া হয়েছে।

বুধবার নাটোরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সুলতান মাহমুদ এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার তাদের দুজনকে আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বনপাড়া হাইওয়ে থানার এসআই তরিকুল ইসলাম।

বনপাড়া হাইওয়ে থানা সুত্র জানায়, গত ২৫ আগস্ট রাতে এ ঘটনায় বনপাড়া হাইওয়ে থানার এএসআই ইউছুফ আলী বাদী হয়ে লালপুর থানায় ৭ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় বড়াইগ্রাম উপজেলা লেগুনা মালিক সমিতির সভাপতি জাবেদ আলী মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, লেগুনার চালক আবদুর রহিম, চালকের সহকারী রাজা মিয়া, চ্যালেঞ্জার বাসের মালিক বগুড়ার মঞ্জু সরকার, বাসের চালক শামীম হোসেন ও চালকের সহকারী আবদুস সামাদ কমলকে আসামি করা হয়।

আসামিদের মধ্য লেগুনার চালক ও সহকারী দুজনই দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন।

পরে বগুড়ার ডিবি পুলিশ বাসচালকের সহকারী আবদুস সামাদ কমলকে বগুড়া শহরতলির মহাস্থানগড় পলাশবাড়ি এলাকার ভাড়া বাসা থেকে আটক করে। এছাড়া বাসচালক শামীম হোসেন মঙ্গলবার বগুড়া ডিবি পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter