সিরাজগঞ্জে চিকিৎসকের অবহেলায় শিশুর মৃত্যু

প্রকাশ : ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৪:০০ | অনলাইন সংস্করণ

  সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

ছবি- যুগান্তর

সিরাজগঞ্জে চিকিৎসকের অবহেলায় মোহাম্মদ আলী (৫) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার পর নিহতের স্বজনদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সহকারী অধ্যাপক (শিশু বিভাগ) লিয়াকত আলী কৌশলে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান।

বুধবার রাতে সিরাজগঞ্জ নর্থবেঙ্গল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত মোহাম্মদ আলী সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার শিয়ালকোল ইউনিয়নের ক্ষুদ্র শিয়ালকোল গ্রামের মমতাজ খন্দকারের ছেলে। 

নিহতের বাবা মমতাজ খন্দকার বলেন, ছেলে মোহাম্মদ আলী দুপুরে বাড়ির আঙিনায় খেলা করছিল। এ সময় ভীমরুলের কামড়ে সে আহত হয়। কিছুক্ষণের মধ্যে অবস্থার অবনতি হলে তাকে সিরাজগঞ্জ নর্থবেঙ্গল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক সহকারী অধ্যাপক (শিশু বিভাগ) লিয়াকত আলী তার শরীরে ধারাবাহিকভাবে ১৪টি ইনজেকশন পুশ করেন। এতে তার ছেলের অবস্থার আরও অবনতি হয় এবং রাত ৮টার দিকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। 

তিনি আরও বলেন, হাসপাতালে নেয়ার পর তার ছেলে মোহাম্মদ আলীকে স্যালাইন পুশ করার কিছুক্ষণ পর ক্যানোলা খুলে গিয়ে রক্তক্ষরণ হতে থাকে। এ সময় হাসপাতালের কোনো চিকিৎসক বা নার্সকে খুঁজে না পাওয়া যায়নি। 

এ ব্যাপারে নর্থবেঙ্গল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক (শিশু বিভাগ) ডা. লিয়াকত আলীর সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। 

তবে হাসপাতালের নির্বাহী পরিচালক ফয়সাল হাসান মাহমুদ জানান, হাসপাতালের পক্ষ থেকে চিকিৎসার কোনো অবহেলা হয়নি। ভীমরুলের কামড়ে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। তাকে বাঁচাতে আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরনের চেষ্টা করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ওসি মোহাম্মদ দাউদ বলেন, এ বিষয়ে এখনও কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।