১১ লাখ ভারতীয় জাল রুপি জব্দ

রাজশাহীতে ১৫ হাজার টাকায় এক লাখ ভারতীয় রুপি!

  রাজশাহী ব্যুরো ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:২৭ | অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীতে ১৫ হাজার টাকায় এক লাখ ভারতীয় রুপি!
প্রতীকী ছবি

রাজশাহীতে ভারতীয় জাল রুপির কারখানার সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নগরীর বোয়ালিয়া থানার বেলদারপাড়ার একটি বাড়িতে র‌্যাব-৫ রাজশাহীর একটি দল অভিযান চালায়। এ সময় ওই বাড়ি থেকে ১১ লাখ ভারতীয় জাল রুপি জব্দ করা হয়। এ ছাড়া জাল রুপি তৈরির মেশিনসহ নানা সরঞ্জামাদিও জব্দ করেন র‌্যাব সদস্যরা।

এ সময় বাড়িটি থেকে দরদুজ্জামান বিশ্বাস ওরফে জামান (৫৭) নামে এক ব্যক্তিকেও গ্রেফতার করা হয়। র‌্যাব-৫ এর মিডিয়া উইং এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

র‌্যাব বলছে, দরদুজ্জামান দেশে ভারতীয় জাল রুপি তৈরির মূলহোতা। এর আগেও একাধিকবার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তিনি ধরা পড়েছিলেন।

সর্বশেষ গেল জানুয়ারিতে রাজশাহী থেকেই তাকে গ্রেফতার করেছিল ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।তার কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ জাল রুপি ছাড়াও ল্যাপটপ, প্রিন্টার মেশিন, লেমিনেটিং মেশিন, হ্যালোজেন লাইট, স্ক্যানিং করার প্রিন্টার ফ্রেম, কাগজ, বিভিন্ন ধরনের কার্টিজ জব্দ করা হয়েছিল।

এরপর বেশ কিছুদিন কারাগারে ছিলেন দরদুজ্জামান। জামিন পেয়ে তিনি নগরীর বেলদারপাড়া এলাকায় এই বাড়িটি কেনেন। এরপর আবার জাল রুপি তৈরির কারখানা গড়ে তুলেছিলেন।

র‌্যাব জানায়, তার গ্রামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার শেখতোলায়। বাবার নাম রহিদুল ইসলাম।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, বারবার গ্রেফতার হলেও জাল রুপি তৈরি করে তা বাজারে ছড়িয়ে দিয়ে প্রতারণা করেন দরদুজ্জামান। তিনি দেশে জাল রুপি তৈরি চক্রের মূলহোতা। তিনি বাংলাদেশে ভারতীয় জাল রুপি তৈরির ‘গুরু’ হিসেবেও পরিচিত। তিনি ১৫ হাজার টাকার বিনিময়ে এক লাখ ভারতীয় জাল রুপির বান্ডিল বিক্রি করতেন। এভাবে তিনি বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন।

সূত্রমতে, দরুদুজ্জামান ১৯৮৮ সাল থেকে বাংলাদেশি জাল টাকা এবং ভারতীয় জাল রুপি তৈরি করে আসছেন। তার চক্রটি ভারতের সীমান্তবর্তী এলাকায় জাল রুপি সরবরাহ করে।

আর দরদুজ্জামান বরাবরই থাকেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ‘মোস্ট ওয়ানটেড’ তালিকায়। তার নামে পাঁচটি মামলা আগে থেকেই ছিল। সর্বশেষ র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হওয়ার ঘটনায় আরও একটি মামলা হয়েছে।

বিষয়টি স্বীকার করে রাজশাহী নগরীর বোয়ালিয়া থানার ওসি আমান উল্লাহ বলেন, বৃহস্পতিবার দিনগত গভীর রাতে র‌্যাব দরদুজ্জামানকে জাল রুপি ও রুপি তৈরির নানা সরঞ্জামসহ থানায় হস্তান্তর করে। এ সময় প্রচলিত ধারায় তার বিরুদ্ধে র‌্যাবের পক্ষ থেকে একটি মামলাও করা হয়। শুক্রবার সকালে আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

 

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter