মাদক উদ্ধার ও অপরাধীদের গ্রেফতারে শ্রেষ্ঠ ফতুল্লার ওসি মঞ্জুর কাদের

  ফতুল্লা প্রতিনিধি ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৭:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

মাদক উদ্ধার ও অপরাধীদের গ্রেফতারে শ্রেষ্ঠ ফতুল্লার ওসি মঞ্জুর কাদের
পুলিশ সুপার আনিসুর রহমানের কাছ থেকে জেলার শ্রেষ্ঠ ওসির পুরষ্কার গ্রহণ করছেন মঞ্জুর কাদের ছবি: যুগান্তর

নারায়ণগঞ্জ জেলায় মাদক উদ্ধার ও অপরাধীদের গ্রেফতারে শ্রেষ্ঠ ফতুল্লা মডেল থানার ওসি শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কাদের (পিপিএম)। গত দুই মাসে ৩৮ লাখ ৬৩ হাজার টাকার মাদকসহ ১৭৩জনকে গ্রেফতার করে আলোচনায় এসেছেন মঞ্জুর কাদের।

এরআগেও ২৪ মে মাদক উদ্ধার ও অপরাধীদের গ্রেফতারে ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ ওসির পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। এর ধারাবাহিতকায় একাধীকবার নারায়ণগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি হিসেবে সম্মাননা পেয়েছেন মঞ্জুর কাদের।

এদিকে ফতুল্লার দুইটি আলোচিত হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামী মা-ছেলে ও স্বামী-স্ত্রীসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করে প্রসংশিত হয়েছেন মঞ্জুর কাদের।

জানা যায়, ফতুল্লার জামতলা এলাকায় নিজ ফ্ল্যাটে স্ত্রী সন্তানদের সামনে থেকে ১ সেপ্টেম্বর রাতে এজিবি’র সাবেক কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেনের (৬৫) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের শরীরে ও গলায় একাধীক রক্তাক্ত জখমের আঘাত দেখতে পেয়েছে পুলিশ।

পুলিশের ধারনা শাহাদাৎ হোসেনকে মারধর ও শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। এঘটনায় নিহতের ছোট ভাই বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। এমামলার এজাহার ভুক্ত আসামি নিহতের স্ত্রী বিলকিস বেগম ও তাদের একমাত্র ছেলে বিল্লাল হোসেন শাকিবকে পরের দিনই গ্রেফতার করে পুলিশ। এ মামলায় তদন্তের অনেক অগ্রগতি হয়েছে বলে পুলিশের দাবী।

একই দিন ১ সেপ্টেম্বর দুপুরে ফতুল্লার পশ্চিম মাসদাইর এলাকায় পাওনা টাকা চাওয়ায় মাদক ব্যবসায়ীদের দেয়া আগুনে পুড়ে প্রাণ হারান একই এলাকার আব্দুল জলিলের ছেলে ঝুট ব্যবসায়ী সুমন মিয়া।

মৃত্যুর আগে সুমন হত্যাকারীদের নাম প্রকাশ করে যায়। পরিবারের লোকজন সেই জবানবন্দি ভিডিও রেকর্ড করে রাখেন।

জবানবন্দিতে সুমন বলেছিলেন, পাশের বাড়ির বিপ্লবের স্ত্রী শায়লা বেগম, সোহেল মন্ডল ও খানকার মোড়ের মাসুদ আলী মিলে তাকে ধরে রাখে এবং বিপ্লব তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এঘটনার ৭ দিনের মাথায় শুক্রবার সকালে বিপ্লব, তার স্ত্রী শায়লা বেগম, সোহেল মন্ডল ও মাসুদ আলীকে বরিশাল থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে ওসি মঞ্জুর কাদের বলেন, নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. আনিসুর রহমান বিপিএম, পিপিএমের (বার) দিক নির্দেশনায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অন্য সময়ের চেয়ে ভালো রাখতে পেরেছি। ফতুল্লায় একজন মাদক ব্যবসায়ীও ছাড় পাবেনা। মাদক ব্যবসায়ীদের খুঁজে বের করতে পুলিশকে সার্বক্ষণিক ব্যস্ত রাখি। গত জুলাই ও আগষ্ট মাসে ৩৮ লাখ ৬৩ হাজার টাকার মাদকসহ ১৭৩জনকে বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে ১৭৩টি মামলা দায়ের করেছি। জেলায় এতো মাদক ব্যবসায়ী কোথাও গ্রেফতার হয়নি।

তিনি আরো জানান, সম্প্রতি দুইটি হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ দুটি হত্যার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের দ্রুত গ্রেফতার করা হয়েছে এবং হত্যার রহস্যও উদঘাটিত হয়েছে।

 

 

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.