বেকারির শিঙাড়া খেয়ে প্রাণ গেল মিথিলার, ভাই হাসপাতালে

  গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৪০ | অনলাইন সংস্করণ

বেকারির শিঙাড়া খেয়ে প্রাণ গেল মিথিলার, ভাই হাসপাতালে
বেকারির শিঙাড়া খেয়ে অসুস্থ শিশু নাঈমকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ছবি: যুগান্তর

বেকারির শিঙাড়া খেয়ে মিথিলা (৫) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছে তার আপন ভাই নাঈম (৯)।

মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার খুবজিপুর ইউনিয়নের পিঁপলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু ব্র্যাকে এবং অসুস্থ নাঈম পিঁপলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র।

সূত্র জানায়, নিহত শিশু মিথিলা ও নাঈম পিঁপলা কারিগরপাড়া গ্রামের নুর ইসলাম ওরফে শুকুরের ছেলেমেয়ে। মঙ্গলবার দুপুরে ওই দুই শিশু গ্রামের হাবিলের দোকান থেকে দুটি শিঙাড়া কিনে খায়।

শিশুর দাদা আফজাল হোসেন বিলাপ করতে করতে বলেন, জীবিকার তাগিদে ছেলে এবং ছেলেবউ তিন সন্তান রেখে ঢাকায় গার্মেন্টসে চাকরি করে। নাতি-নাতনিরা আমার কাছেই থাকে। ঘটনার দিন বোন মিথিলাকে নিয়ে নাইম পার্শ্ববর্তী হাবিলের দোকানে গিয়ে শিঙাড়া কিনে খায়। ওই শিঙাড়া খাওয়ার কিছুক্ষণ পরই নাতি-নাতনি বমি করতে করতে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

মুহূর্তেই দুজন মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিক গুরুদাসপুর হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসক নাইমকে হাসপাতালে ভর্তি করলেও মিথিলার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। হাসপাতাল গেট পার হওয়ার আগেই মিথিলার মৃত্যু হয়। নাইম গুরুদাসপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

গুরুদাসপুর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক রবিউল করিম শান্ত জানান, প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে- খাদ্যে বিষক্রিয়ার কারণে শিশু মিথিলার মৃত্যু হয়েছে। তবে নাঈমের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত।

মাহী বেকারির মালিক মো. মোজাম্মেল হক জানান, তার ওইসব খাবার সহস্রাধিক দোকানে সরবরাহ করা হয়। কোথাও থেকে এ ধরনের খবর পাওয়া যায়নি। এ ঘটনা অন্য কোনো কারণে ঘটতে পারে।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. সেলিম রেজা জানান, ঘটনাটি তিনি শুনেছেন। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেবেন।

 

 

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.