বগুড়ায় টিনের দরজা কেটে গৃহবধূকে হত্যা
jugantor
বগুড়ায় টিনের দরজা কেটে গৃহবধূকে হত্যা

  বগুড়া ব্যুরো  

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:০১:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

গলা কেটে হত্যা

বগুড়া দুপচাঁচিয়া উপজেলায় আফরোজা বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূকে টিনের দরজা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার রাতে উপজেলার বড়চাপড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আফরোজা বেগম তালোড়া ইউনিয়নের বড়চাপড়া গ্রামের ফুলঝাড় বিক্রেতা আবদুল মান্নানের স্ত্রী।

দুপচাঁচিয়া থানার ওসি আবদুর জানান, বুধবার আবদুল মান্নান ঝাড় তৈরির উলু সংগ্রহের জন্য পোড়াদহ যান। তার বড় মেয়ে মনিকা (১২) নন্দীগ্রামের গোপালপুর গ্রামে নানা বাড়িতে ছিল। বুধবার রাতে আফরোজা বেগম তার ৫ বছর বয়সী ছোট মেয়ে মিলিকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন।

রাতের কোনা একসময় দুর্বৃত্তরা টিনের দরজা কেটে ঘরে ঢুকে গলা কেটে আফরোজাকে হত্যা করে। বৃহস্পতিবার সকালে মেয়ে মিলি মায়ের রক্তাক্ত লাশ দেখে চিৎকার করতে থাকে। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠায়।

নিহতের স্বামী আবদুল মান্নান জানান, দুই মাস আগে তার বড় মেয়েকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। তার ধারণা এ মামলার আসামিরাই এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। বৃহস্পতিবার বিকাল পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

বগুড়ায় টিনের দরজা কেটে গৃহবধূকে হত্যা

 বগুড়া ব্যুরো 
১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৫:০১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গলা কেটে হত্যা
প্রতীকি ছবি: যুগান্তর

বগুড়া দুপচাঁচিয়া উপজেলায় আফরোজা বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূকে টিনের দরজা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার রাতে উপজেলার বড়চাপড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত আফরোজা বেগম তালোড়া ইউনিয়নের বড়চাপড়া গ্রামের ফুলঝাড় বিক্রেতা আবদুল মান্নানের স্ত্রী।

দুপচাঁচিয়া থানার ওসি আবদুর জানান, বুধবার আবদুল মান্নান ঝাড় তৈরির উলু সংগ্রহের জন্য পোড়াদহ যান। তার বড় মেয়ে মনিকা (১২) নন্দীগ্রামের গোপালপুর গ্রামে নানা বাড়িতে ছিল। বুধবার রাতে আফরোজা বেগম তার ৫ বছর বয়সী ছোট মেয়ে মিলিকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। 

রাতের কোনা একসময় দুর্বৃত্তরা টিনের দরজা কেটে ঘরে ঢুকে গলা কেটে আফরোজাকে হত্যা করে। বৃহস্পতিবার সকালে মেয়ে মিলি মায়ের রক্তাক্ত লাশ দেখে চিৎকার করতে থাকে। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠায়। 

নিহতের স্বামী আবদুল মান্নান জানান, দুই মাস আগে তার বড় মেয়েকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। তার ধারণা এ মামলার আসামিরাই এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। বৃহস্পতিবার বিকাল পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন