মেহেরপুরে প্যানেল মেয়র হত্যা মামলায় চারজনের যাবজ্জীবন

  মেহেরপুর প্রতিনিধি ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৪০ | অনলাইন সংস্করণ

যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত রাশিদুল ইসলাম আকালি ও আব্দুল হালিম

মেহেরপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র মিজানুর রহমান রিপন হত্যা মামলায় চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে এক লাখ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও দুই বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

সোমবার দুপুরে মেহেরপুরের অতিরিক্ত দায়রা ও স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের দ্বিতীয় আদালতের বিচারক মো. নুরুল ইসলাম এ আদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন মেহেরপুর শহরের গোরস্থানপাড়ার আমজাদ হোসেনের ছেলে রাশিদুল ইসলাম ওরফে আকালি, হোটেল বাজার পাড়ার ইসাহাক আলীর ছেলে আব্দুল হালিম, গাংনী থানাপাড়ার সেকেন্দার আলীর ছেলে মাসুদ রানা ও গাংনী উপজেলার ওলিনগর গ্রামের আরশেদ আলীর ছেলে মো. লাল্টু।

আদালতে রায় ঘোষণার সময় রাশিদুল ইসলাম আকালি ও আব্দুল হালিম উপস্থিত ছিলেন। বাকি দুই আসামি পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০১১ সালের ১ এপ্রিল রাত ৯টার দিকে মেহেরপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র মিজানুর রহমান রিপন তার নিজ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান হোটেল বাজারে অবস্থিত রাজধানী শপিং সেন্টারে বসেছিলেন। ওই সময় অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা মিজানুর রহমানকে হত্যার উদ্দেশ্যে একটি বোমা হামলা চালায়। এতে মিজানুর রহমান রিপনের শরিরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায় এবং তৎকালীন ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামানসহ দোকানের তিন কর্মচারী আহত হন।

তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সেখানে থেকে রাজধানীর একটি হাসপাতালে রিপনকে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে ৮দিন পর ৮ এপ্রিল তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় মিজানুর রহমান রিপনের বাবা আব্দুল হালিম বাদী হয়ে মেহেরপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র মোতাচ্ছিম বিল্লাহ মতু ও সাবেক প্রয়াত কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ আল মামনু বিপুলের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত ১৫-২০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর কাজী শহিদুল হক এবং আসামিপক্ষে মনিরুজ্জামান আইনজীবীর দায়িত্বপালন করেন।

এদিকে মামলার রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে মিজানুর রহমান রিপনের ছোট ভাই মেহেরপুর পৌরসভার মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন জানান, মামলার মূল আসামি সাবেক মেয়র মোতাচ্ছিম বিল্লাহ মতুকে ফাইনাল চার্জশিট থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি আসামিদের ফাঁসি কামনা করেছিলাম। আমরা এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করব।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×