পদ্মার পানি কমলেও রয়েছে ভাঙনের আশঙ্কা

  রাজশাহী ব্যুরো ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:১৭ | অনলাইন সংস্করণ

পদ্মার পানি কমলেও রয়েছে ভাঙনের আশঙ্কা

বেশ কিছু দিন ধরে বাড়তে থাকার পর রাজশাহীতে পদ্মা নদীর পানি কিছুটা কমেছে। তবে রয়ে গেছে ভাঙনের আশঙ্কা।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) বলছে, পূর্বাভাস অনুযায়ী নদীর পানি স্থিতিশীল হয়ে আসবে। তাই এখন আর বন্যার ভয় নেই। তবে পানি কমার সময় কিছু এলাকায় ভাঙন দেখা দিতে পারে।

রাজশাহী পাউবোর গেজ রিডার এনামুল হক জানান, প্রতিনিয়ত পানি বাড়তে থাকার পর মঙ্গলবার চার সেন্টিমিটার পানি কমেছে। এ দিন দুপুর ১২টায় রাজশাহীর বড়কুঠি পয়েন্টে পানির উচ্চতা ছিল ১৭ দশমিক ৩০ সেন্টিমিটার। পানির প্রবাহ বুধবার আরও একটু কমলেই বলা যাবে ভয় নেই।

এনামুল হক জানান, সোমবারও চার সেন্টিমিটার পানি বেড়েছিল। এ দিন পানির উচ্চতা ছিল ১৭ দশমিক ৩৪ সেন্টিমিটার। রাজশাহী পয়েন্টে পদ্মা নদীর পানির বিপৎসীমা ১৮ দশমিক ৫০ সেন্টিমিটার। ২০১৬ সালের ২৮ আগস্ট রাজশাহীতে পদ্মার পানিপ্রবাহ উঠেছিল সর্বোচ্চ ১৮ দশমিক ৪৬ সেন্টিমিটার।

তিনি জানান, গেল ১৫ বছরে রাজশাহীতে পদ্মা নদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করেছে মাত্র দুবার। এর মধ্যে ২০০৪ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত টানা নয় বছর রাজশাহীতে পদ্মার পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করেনি। কেবল ২০০৩ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে পদ্মার সর্বোচ্চ উচ্চতা ছিল ১৮ দশমিক ৮৫ সেন্টিমিটার। এরপর ২০১৩ সালের ৭ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে পদ্মা বিপৎসীমা অতিক্রম করেছিল। ওই বছর পদ্মা নদীর সর্বোচ্চ উচ্চতা দাঁড়িয়েছিল ১৮ দশমিক ৭০ সেন্টিমিটার।

এদিকে রাজশাহীতে পদ্মার পানি এক সপ্তাহ থেকে বিপৎসীমার কাছাকাছি থাকায় এরই মধ্যে নদীতীরবর্তী পবা উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। দুই সপ্তাহ ধরে জেলার গোদাগাড়ী ও পবা উপজেলার চরাঞ্চলের দুই শতাধিক পরিবার চরম দুর্ভোগের মধ্যে দিয়ে দিনরাত অতিবাহিত করছেন।

রাজশাহী পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেসুর রহমান বলেন, পানি বাড়ছে, এটা ঠিক। তবে মঙ্গলবার পানি কমেছে। আমাদের কাছে যে পূর্বাভাস রয়েছে, সে অনুযায়ী নদীর পানি স্থিতিশীল হয়ে আসার সম্ভাবনাই বেশি।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×