প্রবীণ আ’লীগ নেতা ভুলুর ইন্তেকাল

  রাজশাহী ব্যুরো ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:১১ | অনলাইন সংস্করণ

প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব জামান ভুলু

মাহবুব জামান ভুলু আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য ছিলেন। প্রায় ৭৫ বছর বয়সে তিনি মারা গেলেন।

এক সময়ের তুখোড় এই ছাত্রনেতার মৃত্যুতে রাজশাহীর রাজনৈতিক অঙ্গনে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। মৃত্যুকালে তিনি বহু আত্মীয়স্বজন ও কর্মী-সমর্থক রেখে গেছেন।

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার জানান, মঙ্গলবার বিকালে তিনি আকাশপথে ঢাকা থেকে রাজশাহী ফেরেন। বিমানবন্দরে নেমেই তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ সময় তাকে দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে নগরীর হেতেমখাঁ এলাকায় তার লাশ নিয়ে যাওয়া হয়। বুধবার দুপুর ২টায় রাজশাহী কলেজ মাঠে জানাজা শেষে হেতেমখাঁ কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে বলেও জানান ডাবলু সরকার।

মাহবুব জামান ভুলু ১৯৬৫ সালে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে যোগ দেন। ১৯৬৬ সালে ৬ দফা দাবির আন্দোলন-সংগ্রামে নেতৃত্ব দেন। ১৯৬৯ সালে ছাত্র ঐক্য সংগ্রাম পরিষদের নেতা নির্বাচিত হয়ে বৃহত্তর রাজশাহীর গণআন্দোলনে নেতৃত্ব দেন। একাত্তরে তিনি মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন এবং বিএনএফের রাজশাহী কমান্ডের দায়িত্ব পালন করেন। স্বাধীনতার পরের বছর তিনি যুবলীগের সদস্য হন।

এরপর ১৯৭৫ সালে তিনি বঙ্গবন্ধুর বাকশালের রাজশাহী জেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর সামরিক জান্তার হাতে মাহবুব জামান ভুলু গ্রেফতার হন এবং কারাবরণ করেন। পরে ১৯৭৮ সালে তিনি মুক্তি পান। ১৯৭৯ সালে তিনি যুবলীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৬ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পান।

বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনে ১৯৮৮ থেকে ৯২ সাল পর্যন্ত মাহবুব জামান ভুলু রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৭ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত তিনি মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে ১৯৯০ সালে তিনি যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন এবং এরশাদবিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন।

মাহবুব জামান ভুলু ১৯৯১ সালে তিনি রাজশাহী-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেন। ২০১১ সালে আওয়ামী লীগ সরকার দলের পরীক্ষিত এই নেতাকে রাজশাহী জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ দেয়। ২০১৬ সাল পর্যন্ত তিনি এ পদে ছিলেন। ওই বছরের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত জেলা পরিষদ নির্বাচনেও আওয়ামী লীগ তাকে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী করেছিল।

মাহবুব জামান ভুলুর মৃত্যুতে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, রাজশাহী সদর আসনের এমপি ফজলে হোসেন বাদশা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী এবং জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার প্রমুখ শোকপ্রকাশ করেছেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×