কোহলির আর্জি, ঘুম থেকে উঠুন-দায়িত্ব নিন

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৮ মার্চ ২০২০, ১২:৩৬:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের লাগামছাড়া প্রভাবের মধ্যে দেশবাসীকে দায়িত্বশীল হওয়ার বার্তা দিলেন ভারত জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের আরোপিত লকডাউনের নিয়ম মেনে নিজেকে ঘরবন্দি রেখেছেন তিনি। দেশের প্রতিটি নাগরিক সেই নিয়ম মেনে চলুক, চান এ ব্যাটিং মায়েস্ত্রো।

নোভেল করোনাভাইরাসের জেরে বিশ্বব্যাপী প্রায় ২৫ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন সাড়ে ৫ লাখেরও বেশি মানুষ। ভারতে মারণঘাতী এ ভাইরাসের বলি হয়েছেন ২০ জন। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৮৫০ জন।

এ কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলায় সারাদেশে লকডাউন জারি করেছে ভারতীয় সরকার। আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত ঘরবন্দি থাকতে হবে সব মানুষকে। বন্ধ থাকবে দোকানপাট, চলবে না যানবাহন, স্তব্ধ থাকবে বিমান।

করোনার করাল গ্রাসেও বেশ নির্লিপ্ত দেখা গেছে ভারতের বিভিন্নি প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কিছু মানুষকে। সরকারি নিষেধাজ্ঞা ও পুলিশের রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করে রাস্তায় জটলা করতে দেখা গেছে কিছু নাগরিকদের। মুখে মাস্ক না পরেই রাস্তায় বেরিয়ে পড়েছেন অনেকে। কোথাও বুঝিয়ে, তো কোথাও কড়া পদক্ষেপ নিয়ে সেসব মানুষকে ঘরে ফিরিয়েছে পুলিশ।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আরোপিত লকডাউনকে সমর্থন করে এর আগেও সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করতে দেখা গেছে কোহলিকে। আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত সব মানুষকে গৃহবন্দি থাকার আহ্বান জানান তিনি। কিন্তু মানুষ সরকারি নিষেধাজ্ঞা ও আবেদন হালকাভাবে নেয়ায় হতাশ হয়েছেন টিম ইন্ডিয়া ক্যাপ্টেন।

কিছু মানুষের অপরিণামদর্শিতার কারণে বড় অংশের নাগরিক বিপদের মুখে পড়তে পারেন বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে নয়, সাধারণ নাগরিক হিসেবে দেশের সব নাগরিকদের উদ্দেশে কোহলির বার্তা, ঘুম থেকে উঠুন এবং দায়িত্ব নিন। আমাদের সততা ও সমর্ন জাতির দরকার। সোশ্যাল মিডিয়া টুইটারে মানুষকে গুরুত্ব অনুধাবন করার আর্জি জানিয়েছেন তিনি। তার কথায়, বিষয়টিকে এত হালকাভাবে নিলে বিপদে পড়তে হবে।

তথ্যসূত্র: টুইটার/ওয়ান ইন্ডিয়া।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত