ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা আক্রান্তের কথা শুনে পালিয়ে গেলেন উপদেষ্টা (ভিডিও)

  যুগান্তর ডেস্ক ২৮ মার্চ ২০২০, ১৭:২১:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি: সংগৃহীত

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর শুনে তার এক সিনিয়র উপদেষ্টা পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়, বরিস সংক্রমণের ঘোষণা দেয়ার পরই ডমিনিক কামিংস নামের ওই উপদেষ্টা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটের পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যান।

শুক্রবার বরিস জনসন যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের উদ্দেশে টুইটবার্তায় বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার উপসর্গগুলো বৃদ্ধি পাওয়ার পর আমার করোনাভাইরাস পজেটিভ ধরা পড়েছে।

বরিস জনসনের টুইট করার কিছুক্ষণ আগে অন্য কর্মকর্তাদের পাশাপাশি সিনিয়র উপদেষ্টা ডমিনিক কামিংসও তার কার্যালয়ে ছিলেন।

বরিস আক্রান্ত হওয়ার খবর শুনেই তিনি হন্তদন্ত হয়ে কাউকে কিছু না বলে পেছনের দরজা দিয়ে বের হয়ে ছুটতে থাকেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া সিসিটিভির একটি ফুটেজে দেখা যায়, বাঁ হাতে একটা ব্যাগ কোনোরকমে চেপে ধরে ডমিনিক কামিংস ছুটে পালিয়ে যাচ্ছেন। পালিয়ে যাওয়ার সময় তার কাঁধে ল্যাপটপ ব্যাগ ঝোলানো ছিল।

মঙ্গলবার হাঙ্গেরিতে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ব্রিটেনের ডেপুটি হেড অব মিশন স্টিভেন ডিক মারা গেছেন। বুদাপেস্টে মাত্র ৩৭ বছর বয়সী এই কূটনীতিকের মৃত্যু হয়।

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের আক্রান্ত হওয়ার পর দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রীও আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে।শুক্রবার দেশটির প্রধানমন্ত্রীর আক্রান্তের কয়েক ঘণ্টা পর স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আক্রান্ত হওয়ার খবর আসে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক তার টুইটারে বলেন, আমার শরীরে করোনাভাইরাসের বড় লক্ষণ ছিল না। তবে পরীক্ষায় করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। এখন আমি স্বেচ্ছায় আইসোলেশনে রয়েছি। বাসা থেকে অফিস করব।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত