সর্দিজ্বরে নারীর মৃত্যু, পূর্বধলায় ৮ পরিবার লকডাউন
jugantor
সর্দিজ্বরে নারীর মৃত্যু, পূর্বধলায় ৮ পরিবার লকডাউন

  নেত্রকোনা প্রতিনিধি  

০৫ এপ্রিল ২০২০, ১৪:৪৯:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

সর্দিজ্বরে নারীর মৃত্যু, পূর্বধলায় ৮ পরিবার লকডাউন

সর্দিজ্বরে আক্রান্ত হয়ে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

রোববার ভোর ৪টার দিকে উপজেলার হোগলা ইউনিয়নের কালীহর জোয়াদ্দারপাড়া গ্রামের নিজ বাড়িতে ওই নারী অসুস্থ হয়ে মারা যান।

মৃত ওই নারীর নাম নুরুন্নাহার (৪৫)। তিনি একই এলাকার রকিব মিয়ার স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, ওই নারী বিদেশ কিংবা ঢাকা ফেরত কারও সংস্পর্শে যাননি। গত চার-পাঁচ দিন ধরে তিনি সর্দিজ্বরে ভুগছিলেন।

রোববার ভোর ৪টার দিকে করোনাভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে ওই নারী অসুস্থ অবস্থায় মারা যান। ওই নারী নিঃসন্তান ছিলেন। তার স্বামী ও একটি পালিত কন্যাসহ বাড়িতেই বসবাস করতেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম খোকন জানান, গত চার দিন ধরে ওই নারীর হালকা জ্বর ও কাশি ছিল। হঠাৎ করে শনিবার থেকে শ্বাসকষ্টসহ পাতলা পায়খানা শুরু হয়। এ অবস্থায় রোববার ভোরে তিনি নিজ বাড়িতে মারা যান।

পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মাহমুদা আক্তার জানান, ওই নারীর করোনার উপসর্গ সন্দেহে নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। রিপোর্ট এলে বিস্তারিত বলা যাবে।

নেত্রকোনা ও পূর্বধলা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোরশেদা খানম জানান, ওই নারীর শরীরে করোনার উপসর্গ সন্দেহে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে ওই বাড়ির আশপাশের আটটি পরিবারকে লকডাউন করা হয়েছে।

পূর্বধলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) উম্মে কুলসুম জানান, মৃত ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কিনা, তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য ইতিমধ্যে নমুনা সংগ্রহ করতে চার সদস্যের একটি মেডিকেল টিম ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

নিহত ব্যক্তির পরিবারের সদস্য এবং তাদের নিকটতম প্রতিবেশীদের কোয়ারেন্টিনে রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সর্দিজ্বরে নারীর মৃত্যু, পূর্বধলায় ৮ পরিবার লকডাউন

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি 
০৫ এপ্রিল ২০২০, ০২:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সর্দিজ্বরে নারীর মৃত্যু, পূর্বধলায় ৮ পরিবার লকডাউন
ফাইল ছবি

সর্দিজ্বরে আক্রান্ত হয়ে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। 

রোববার ভোর ৪টার দিকে উপজেলার হোগলা ইউনিয়নের কালীহর জোয়াদ্দারপাড়া গ্রামের নিজ বাড়িতে ওই নারী অসুস্থ হয়ে মারা যান।

মৃত ওই নারীর নাম নুরুন্নাহার (৪৫)। তিনি একই এলাকার রকিব মিয়ার স্ত্রী। 

স্থানীয়রা জানান, ওই নারী বিদেশ কিংবা ঢাকা ফেরত কারও সংস্পর্শে যাননি। গত চার-পাঁচ দিন ধরে তিনি সর্দিজ্বরে ভুগছিলেন। 

রোববার ভোর ৪টার দিকে করোনাভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে ওই নারী অসুস্থ অবস্থায় মারা যান। ওই নারী নিঃসন্তান ছিলেন। তার স্বামী ও একটি পালিত কন্যাসহ বাড়িতেই বসবাস করতেন। 

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম খোকন জানান, গত চার দিন ধরে ওই নারীর হালকা জ্বর ও কাশি ছিল। হঠাৎ করে শনিবার থেকে শ্বাসকষ্টসহ পাতলা পায়খানা শুরু হয়। এ অবস্থায় রোববার ভোরে তিনি নিজ বাড়িতে মারা যান। 

পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মাহমুদা আক্তার জানান, ওই নারীর করোনার উপসর্গ সন্দেহে নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। রিপোর্ট  এলে বিস্তারিত বলা যাবে।

নেত্রকোনা ও পূর্বধলা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোরশেদা খানম জানান, ওই নারীর শরীরে করোনার উপসর্গ সন্দেহে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে ওই বাড়ির আশপাশের আটটি পরিবারকে লকডাউন করা হয়েছে।

পূর্বধলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) উম্মে কুলসুম জানান, মৃত ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কিনা, তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য ইতিমধ্যে নমুনা সংগ্রহ করতে চার সদস্যের একটি মেডিকেল টিম ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। 

নিহত ব্যক্তির পরিবারের সদস্য এবং তাদের নিকটতম প্রতিবেশীদের কোয়ারেন্টিনে রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস