অনুপ্রবেশের অপেক্ষায় ১৫০ রোহিঙ্গা, করোনা সন্দেহে সীমান্তে পাহারা বসিয়েছেন এলাকাবাসী

  উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ১০ এপ্রিল ২০২০, ১৫:১৬:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ-মায়ানমার সীমান্ত। ফাইল ফটো

উখিয়া ও টেকনাফের কয়েকটি সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে দেড় শতাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছেন। তাদের অনুপ্রবেশ রুখতে উখিয়ার পালংখালী ও টেকনাফের হোয়াইক্যং সীমান্ত এলাকার বাসিন্দারা রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন।

অনুপ্রবেশের অপেক্ষায় থাকা রোহিঙ্গাদের অধিকাংশ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে পালংখালী ইউনিয়নের আঞ্জুমানপাড়া ও হোয়াইক্যং উলবনিয়া এলাকার মসজিদগুলোতে জনপ্রতিনিধিদের পক্ষ থেকে মাইকিং করে স্থানীয়দের সতর্ক করা হয় যে, বেশ কিছু রোহিঙ্গা সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাতে পারে। এ খবরে সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে পাহারা দিতে শুরু করে।

পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের ৯নং ওয়ার্ড়ের ইউপি সদস্য সুলতান আহমদ জানান, বৃহস্পতিবার রাতে সীমান্তে দায়িত্বরত থাকা একটি সরকারি সংস্থার পক্ষ থেকে আমাদের এ তথ্য দিলে কয়েকটি মসজিদে মাইকিং করে সতর্ক করি আমরা। এর পর থেকে রাত জেগে এলাকার কিছু মানুষ সীমান্তের পাইশাখালী নামক চিংড়িঘের এলাকায় অবস্থান করছেন।

তিনি বলেন, আমাদের ধারণা, ওপারের রোহিঙ্গাদের মধ্যে করোনা সংক্রমণ ঘটেছে। আমরা প্যারাবনের ভেতরে বেশ কিছু মানুষের গুঞ্জন ও কান্নার শব্দ শুনেছি। এই সংকটময় সময় নতুন করে কোনো রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেব না আমরা।

পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গফুর উদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাতে আমিও আঞ্জুমানপাড়া সীমান্তে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে পাহারায় ছিলাম। শুক্রবার ১০টায় বিশ্রাম নিতে বাসায় আসি।

এ বিষয়ে কক্সবাজার ৩৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ জানান, উখিয়া ও টেকনাফ সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে রোহিঙ্গাদের একটি দল বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে বলে আমরাও শুনেছি। ওই পয়েন্টে বিজিবি সদস্যদের পাঠানো হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত হোক বা না হোক নতুন করে আর কোনো রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ করতে দেয়া যাবে না।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত