সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরল করোনা আক্রান্ত শেরপুরের ১০ বছরের শিশু
jugantor
সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরল করোনা আক্রান্ত শেরপুরের ১০ বছরের শিশু

  শেরপুর ও শ্রীবরদী প্রতিনিধি  

১৮ এপ্রিল ২০২০, ১৮:৩৬:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলায় করেনা আক্রান্ত ১০ বছরের শিশু সুস্থ্ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে। এ নিয়ে শেরপুরে করোনায় সুস্থ্ হয়ে বাড়ি ফেরা রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ জনে।

গত ৮ এপ্রিল ওই শিশুর দেহে করোনাভাইরাসের পজেটিভ রিপোর্ট আসে। এরপর ওই শিশুকে শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, ভর্তির পঞ্চম এবং সপ্তম দিনে রোগীর নমুনা পরীক্ষার ফলাফল কোভিড-১৯ নেগেটিভ আসায় শনিবার দুপুরে তাকে ছাড়পত্র প্রদান করা হয়।

তিনি আরও জানান, তার বাড়ি শ্রীবরদী পৌর শহরের সাতানী শ্রীবরদী মহল্লায়। তার দাদী শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আয়া গত ৫ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হন। পরে তাকে শেরপুর ২৫০ শয্যার জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়। সেখানে ১২ দিন চিকিৎসা শেষে সুস্থ্ হয়ে গত বৃহস্পতিবার বাড়ি ফিরে গেছে।

ছাড়পত্র দেয়া হলেও ওই শিশুকে যেন কমপক্ষে আরও ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয় সে জন্য অভিভাবকদের পরামর্শ প্রদান করেন চিকিৎসকরা।

সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরল করোনা আক্রান্ত শেরপুরের ১০ বছরের শিশু

 শেরপুর ও শ্রীবরদী প্রতিনিধি 
১৮ এপ্রিল ২০২০, ০৬:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলায় করেনা আক্রান্ত ১০ বছরের শিশু সুস্থ্ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে। এ নিয়ে শেরপুরে করোনায় সুস্থ্ হয়ে বাড়ি ফেরা রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ জনে। 

গত ৮ এপ্রিল ওই শিশুর দেহে করোনাভাইরাসের পজেটিভ রিপোর্ট আসে। এরপর ওই শিশুকে শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। 

শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, ভর্তির পঞ্চম এবং সপ্তম দিনে রোগীর নমুনা পরীক্ষার ফলাফল কোভিড-১৯ নেগেটিভ আসায় শনিবার দুপুরে তাকে ছাড়পত্র প্রদান করা হয়। 

তিনি আরও জানান, তার বাড়ি শ্রীবরদী পৌর শহরের সাতানী শ্রীবরদী মহল্লায়। তার দাদী শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আয়া গত ৫ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হন। পরে তাকে শেরপুর ২৫০ শয্যার জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়। সেখানে ১২ দিন চিকিৎসা শেষে সুস্থ্ হয়ে গত বৃহস্পতিবার বাড়ি ফিরে গেছে। 

ছাড়পত্র দেয়া হলেও ওই শিশুকে যেন কমপক্ষে আরও ১৪ দিন  হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয় সে জন্য অভিভাবকদের পরামর্শ প্রদান করেন চিকিৎসকরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন