সিলেটে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৫৭০ বস্তা চাল জব্দ, আটক ৫
jugantor
সিলেটে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৫৭০ বস্তা চাল জব্দ, আটক ৫

  সিলেট ব্যুরো  

২৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩:৩৪:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলায় ১০ টাকা কেজির খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৫৭০ বস্তা চাল দোকানে বিক্রির চেষ্টাকালে জব্দ করেছে পুলিশ।

রোববার উপজেলার কালিগঞ্জ বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বস্তা প্রতি ৩০ কেজি ওজনের ৫৭০ বস্তা চাল কসকনকপুর নিয়ে যাওয়ার কথা ডিলার আবদুল মুকিতের। কিন্তু রাস্তায় আরেকটি দোকানে চাল নামানোর ঘটনায় জনতার রোষানলে পড়তে হয় ওই পরিবেশককে।

এক পর্যায়ে জনতা উত্তেজিত হয়ে চালের গাড়িতে লুটপাট করে। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, এএসপি সার্কেল, থানার ওসি ও উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে পৌঁছেন।

জকিগঞ্জ থানার ওসি মীর মোহাম্মদ আবদুন নাসের এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, চালের গাড়িসহ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাটি প্রেসনোট দিয়ে জানিয়ে দেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিজন কুমার সিংহ বলেন, খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজির চাল মিলারের কাছ থেকে ডিলার নিয়ে আসেন। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য প্রশাসন, পুলিশ, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা কেউ এ খবর জানেন না।

তিনি বলেন, উপজেলার কসকনকপুরের ডিলার আবদুল মুকিত, মানিকপুরের খলিলুর রহমান ও বারঠাকুরীর হোসেন আহমদ নির্দিষ্ট স্থানে চাল না নামিয়ে অন্যত্র নামান। জনতা বিষয়টি আঁচ করতে পেরে উত্তেজিত হয়ে লুটপাট শুরু করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে চালের গাড়িটি জব্দ করে থানায় আনা হয়েছে। কতো বস্তা চাল লুট হয়েছে তার হিসাব করা হবে।

বিজন কুমার সিংহ বলেন, ডিলার তার দোকানে চাল নামালে সমস্যা ছিল না। কিন্তু অন্য দোকানে নামানো নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। আর কাউকে না জানিয়ে আনার কারণে সড়কে ও অন্যত্র গাড়ি লোড করে ফেলতে পারতেন। এটা অপরাধ করেছেন। এরপরও বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

স্থানীয়রা এ বিষয়ে বলেন, চালের গাড়িটি কসকনকপুর না গিয়ে কালিগঞ্জ একটি দোকানে নামাতে দেখে জনতা ঘেরাও করেন। এসময় উত্তেজিত জনতা লুটপাটও করেছেন। খবর পেয়ে প্রশাসনের লোকজন এসে চালের গাড়িটি তাদের নিয়ন্ত্রণে নেয় এবং জড়িত পাঁচজনকে আটক করে।

সিলেটে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৫৭০ বস্তা চাল জব্দ, আটক ৫

 সিলেট ব্যুরো 
২৬ এপ্রিল ২০২০, ১১:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলায় ১০ টাকা কেজির খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৫৭০ বস্তা চাল দোকানে বিক্রির চেষ্টাকালে জব্দ করেছে পুলিশ।

রোববার উপজেলার কালিগঞ্জ বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বস্তা প্রতি ৩০ কেজি ওজনের ৫৭০ বস্তা চাল কসকনকপুর নিয়ে যাওয়ার কথা ডিলার আবদুল মুকিতের। কিন্তু রাস্তায় আরেকটি দোকানে চাল নামানোর ঘটনায় জনতার রোষানলে পড়তে হয় ওই পরিবেশককে।

এক পর্যায়ে জনতা উত্তেজিত হয়ে চালের গাড়িতে লুটপাট করে। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, এএসপি সার্কেল, থানার ওসি ও উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে পৌঁছেন।

জকিগঞ্জ থানার ওসি মীর মোহাম্মদ আবদুন নাসের এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, চালের গাড়িসহ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাটি প্রেসনোট দিয়ে জানিয়ে দেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিজন কুমার সিংহ বলেন, খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজির চাল মিলারের কাছ থেকে ডিলার নিয়ে আসেন। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য প্রশাসন, পুলিশ, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা কেউ এ খবর জানেন না।

তিনি বলেন, উপজেলার কসকনকপুরের ডিলার আবদুল মুকিত, মানিকপুরের খলিলুর রহমান ও বারঠাকুরীর হোসেন আহমদ নির্দিষ্ট স্থানে চাল না নামিয়ে অন্যত্র নামান। জনতা বিষয়টি আঁচ করতে পেরে উত্তেজিত হয়ে লুটপাট শুরু করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে চালের গাড়িটি জব্দ করে থানায় আনা হয়েছে। কতো বস্তা চাল লুট হয়েছে তার হিসাব করা হবে।

বিজন কুমার সিংহ বলেন, ডিলার তার দোকানে চাল নামালে সমস্যা ছিল না। কিন্তু অন্য দোকানে নামানো নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। আর কাউকে না জানিয়ে আনার কারণে সড়কে ও অন্যত্র গাড়ি লোড করে ফেলতে পারতেন। এটা অপরাধ করেছেন। এরপরও বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

স্থানীয়রা এ বিষয়ে বলেন, চালের গাড়িটি কসকনকপুর না গিয়ে কালিগঞ্জ একটি দোকানে নামাতে দেখে জনতা ঘেরাও করেন। এসময় উত্তেজিত জনতা লুটপাটও করেছেন। খবর পেয়ে প্রশাসনের লোকজন এসে চালের গাড়িটি তাদের নিয়ন্ত্রণে নেয় এবং জড়িত পাঁচজনকে আটক করে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস