সুনামগঞ্জে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন দুই করোনা রোগী
jugantor
সুনামগঞ্জে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন দুই করোনা রোগী

  সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি  

২৭ এপ্রিল ২০২০, ২৩:৩২:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। সোমবার সুনামগঞ্জ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

করোনা আক্রান্ত ওই দুই রোগীর নমুনা একাধিকবার পরীক্ষা করে তাদের ফলাফল নেগেটিভ আসা এবং তাদের শারীরিক সুস্থতা বিবেচনায় নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থেকে তাদের বাড়ি যাওয়ার ছাড়পত্র দিয়েছেন।

সুস্থ হওয়া রোগীরা হচ্ছেন জেলার দোয়ারা উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নের চণ্ডীপুর গ্রামের এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী (৩৫)। অপরজন জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার পুরানগাঁওয়ের বাসিন্দা।

গত ১৩ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত ওই যুবক ঢাকায় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় সুনামগঞ্জে পালিয়ে আসেন। ঢাকা থেকে তথ্য পেয়ে গত ১৫ এপ্রিল রাতে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. চৌধুরী জালাল উদ্দিন মুর্শেদ স্থানীয় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় করোনা আক্রান্ত ওই রোগীকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে প্রেরণ করেন।
 
জানা যায়, গত ১২ এপ্রিল সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার জেলার দোয়ারা উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নের চণ্ডীপুর গ্রামের এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর (৩৫) সর্বপ্রথম  করোনাভাইরাস পজিটিভ সনাক্ত হয়। পরে তাকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে আইসোলেশনে ভর্তি করা হয়। 

ঢাকা থেকে পালিয়ে আসা ওই যুবক বলেন, ‘মনের মধ্যে একটি ভীতি কাজ করায় আমি পালিয়ে আসি। কিন্তু ডাক্তাররা আমাকে ঠিকই খুঁজে বের করেন। আমি এখন সুস্থ। আমার মতো ভুল কেউ করবেন না। করোনায় আক্রান্ত হলে অবশ্যই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হবে। আমি নতুন জীবন ফিরে পেয়েছি। সবাইকে একটি কথাই বলবো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে ভয় পাবেন না, নিয়ম মেনে চললে ইনশাআল্লাহ সুস্থ হবেন।’

উল্লেখ্য,জেলায় মোট ১৫ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর মধ্যে দুইজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তবে এখনও জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৪ জন। কারণ ঢাকা থেকে করোনা আক্রান্ত হয়ে পালিয়ে আসা যুবকের গণনা হবে ঢাকা জেলার মধ্যে।

সুনামগঞ্জে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন দুই করোনা রোগী

 সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি 
২৭ এপ্রিল ২০২০, ১১:৩২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। সোমবার সুনামগঞ্জ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

করোনা আক্রান্ত ওই দুই রোগীর নমুনা একাধিকবার পরীক্ষা করে তাদের ফলাফল নেগেটিভ আসা এবং তাদের শারীরিক সুস্থতা বিবেচনায় নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থেকে তাদের বাড়ি যাওয়ার ছাড়পত্র দিয়েছেন।

সুস্থ হওয়া রোগীরা হচ্ছেন জেলার দোয়ারা উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নের চণ্ডীপুর গ্রামের এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী (৩৫)। অপরজন জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার পুরানগাঁওয়ের বাসিন্দা।

গত ১৩ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত ওই যুবক ঢাকায় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় সুনামগঞ্জে পালিয়ে আসেন। ঢাকা থেকে তথ্য পেয়ে গত ১৫ এপ্রিল রাতে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. চৌধুরী জালাল উদ্দিন মুর্শেদ স্থানীয় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় করোনা আক্রান্ত ওই রোগীকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে প্রেরণ করেন।

জানা যায়, গত ১২ এপ্রিল সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার জেলার দোয়ারা উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নের চণ্ডীপুর গ্রামের এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর (৩৫) সর্বপ্রথম করোনাভাইরাস পজিটিভ সনাক্ত হয়। পরে তাকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে আইসোলেশনে ভর্তি করা হয়।

ঢাকা থেকে পালিয়ে আসা ওই যুবক বলেন, ‘মনের মধ্যে একটি ভীতি কাজ করায় আমি পালিয়ে আসি। কিন্তু ডাক্তাররা আমাকে ঠিকই খুঁজে বের করেন। আমি এখন সুস্থ। আমার মতো ভুল কেউ করবেন না। করোনায় আক্রান্ত হলে অবশ্যই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হবে। আমি নতুন জীবন ফিরে পেয়েছি। সবাইকে একটি কথাই বলবো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে ভয় পাবেন না, নিয়ম মেনে চললে ইনশাআল্লাহ সুস্থ হবেন।’

উল্লেখ্য,জেলায় মোট ১৫ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর মধ্যে দুইজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তবে এখনও জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৪ জন। কারণ ঢাকা থেকে করোনা আক্রান্ত হয়ে পালিয়ে আসা যুবকের গণনা হবে ঢাকা জেলার মধ্যে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০