ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত ভালুকার কলেজছাত্রের মৃত্যু
jugantor
ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত ভালুকার কলেজছাত্রের মৃত্যু

  ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

০৭ মে ২০২০, ২২:২৫:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আজিজুল হক

ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার জামিরদিয়া এলাকার টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটের মেধাবী ছাত্র আজিজুল হক (২২) মারা গেছেন।

বুধবার দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে নেত্রকোনা জেলার সদর থানার দুগিয়ারাম গ্রামে নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। নিহত আজিজুল হক ওই গ্রামের আফতাব উদ্দিনের ছেলে।

এর আগে সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় ময়মনসিংহ নগরীর শম্ভুগঞ্জ ব্রিজের পাশে রেলক্রসিং এলাকায় ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, ভালুকা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটে লেখাপড়ার পাশাপাশি আজিজুল উপজেলার জামিরদিয়া স্কয়ার মাস্টারবাড়ি এলাকায় বসবাস করে এনভয় টেক্সটাইল মিলে চাকরি করতেন।

করোনার কারণে মিল ও কলেজ ছুটি হয়ে যাওয়ায় আজিজুল নিজ বাড়িতে চলে যান। সোমবার কর্মস্থলে যোগদান করতে আসেন। তার শরীর খারাপ থাকায় তিনি ছুটি নেন। বিকালে ভালুকা থেকে নেত্রকোনার উদ্দেশে রওনা দেন। ভেঙ্গে ভেঙ্গে বিভিন্ন যানবাহন দিয়ে যাওয়ায় ময়মনসিংহ সদরে পৌঁছতে সন্ধ্যা হয়ে যায়। আজিজুল রিকশাযোগে শম্ভুগঞ্জ ব্রিজের কাছাকাছি পৌঁছাতেই ছিনতাইকারীরা তাকে ছুরিকাঘাত করে সব নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে স্বজনরা এসে উদ্ধার করে নেত্রকোনা সদরে নিজ বাড়ি নিয়ে যান। পরদিন মঙ্গলবার নেত্রকোনা সদর হাসপাতালে আজিজুলকে চিকিৎসা দিয়ে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। করোনার কারণে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়নি। বুধবার তার শরীরের অবস্থা খারাপ হলে তাকে নেত্রকোনার আল মদিনা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নেয়া হয়। সেখানে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ব্যবস্থাপত্র দিলে তাকে আবার বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।

কলেজের অধ্যক্ষ জাকির হোসেন জানান, ছেলেটি খুবই মেধাবী ও কর্মঠ ছিল। সে বাড়ি যাওয়ার পথে ছিনতাইকারীর হামলায় আহত হয়ে মারা যায়।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমি অবগত না। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত ভালুকার কলেজছাত্রের মৃত্যু

 ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
০৭ মে ২০২০, ১০:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আজিজুল হক
আজিজুল হক। ফাইল ছবি

ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার জামিরদিয়া এলাকার টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটের মেধাবী ছাত্র আজিজুল হক (২২) মারা গেছেন।

বুধবার দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে নেত্রকোনা জেলার সদর থানার দুগিয়ারাম গ্রামে নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। নিহত আজিজুল হক ওই গ্রামের আফতাব উদ্দিনের ছেলে।

এর আগে সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় ময়মনসিংহ নগরীর শম্ভুগঞ্জ ব্রিজের পাশে রেলক্রসিং এলাকায় ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, ভালুকা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটে লেখাপড়ার পাশাপাশি আজিজুল উপজেলার জামিরদিয়া স্কয়ার মাস্টারবাড়ি এলাকায় বসবাস করে এনভয় টেক্সটাইল মিলে চাকরি করতেন।

করোনার কারণে মিল ও কলেজ ছুটি হয়ে যাওয়ায় আজিজুল নিজ বাড়িতে চলে যান। সোমবার কর্মস্থলে যোগদান করতে আসেন। তার শরীর খারাপ থাকায় তিনি ছুটি নেন। বিকালে ভালুকা থেকে নেত্রকোনার উদ্দেশে রওনা দেন। ভেঙ্গে ভেঙ্গে বিভিন্ন যানবাহন দিয়ে যাওয়ায় ময়মনসিংহ সদরে পৌঁছতে সন্ধ্যা হয়ে যায়। আজিজুল রিকশাযোগে শম্ভুগঞ্জ ব্রিজের কাছাকাছি পৌঁছাতেই ছিনতাইকারীরা তাকে ছুরিকাঘাত করে সব নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে স্বজনরা এসে উদ্ধার করে নেত্রকোনা সদরে নিজ বাড়ি নিয়ে যান। পরদিন মঙ্গলবার নেত্রকোনা সদর হাসপাতালে আজিজুলকে চিকিৎসা দিয়ে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। করোনার কারণে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়নি। বুধবার তার শরীরের অবস্থা খারাপ হলে তাকে নেত্রকোনার আল মদিনা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নেয়া হয়। সেখানে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ব্যবস্থাপত্র দিলে তাকে আবার বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।

কলেজের অধ্যক্ষ জাকির হোসেন জানান, ছেলেটি খুবই মেধাবী ও কর্মঠ ছিল। সে বাড়ি যাওয়ার পথে ছিনতাইকারীর হামলায় আহত হয়ে মারা যায়।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমি অবগত না। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

০৪ ডিসেম্বর, ২০২১