সুন্দরগঞ্জে প্রতারণার শিকার বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন এমপি শামীম
jugantor
সুন্দরগঞ্জে প্রতারণার শিকার বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন এমপি শামীম

  গাইবান্ধা প্রতিনিধি  

০৮ মে ২০২০, ২২:২১:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে প্রতারণার শিকার বৃদ্ধা আনোয়ারা বেগমের (৭০) দায়িত্ব নিলেন জাতীয় পার্টির অতিরিক্ত মহাসচিব (রংপুর) ও স্থানীয় এমপি ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী। তিনি ভাতার কার্ড পাইয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করবেন বলে জানা গেছে।

শুক্রবার দুপুরে ওই বৃদ্ধাকে কার্ড করে দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন এমপি ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী।

গত কয়েকদিন আগে ওই বৃদ্ধার সঙ্গে প্রতারণার বিষয়ে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বিষয়টি এমপির নজরে এলে বৃদ্ধা আনোয়ারা বেগমকে বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দিতে তিনি তার বিশেষ সহকারীকে নির্দেশ দেন। এমপির নির্দেশনা অনুযায়ী ওই বৃদ্ধার জাতীয় পরিচয়পত্রে এমপির সুপারিশসহ সমাজসেবা অফিসে জমা দেয়া হয়েছে।

প্রতারণার শিকার ওই বৃদ্ধা উপজেলার দহবন্দ ইউনিয়নের দক্ষিণ ধুমাইটারী গ্রামের মৃত আসকার আলীর স্ত্রী। তিন বছর আগে বয়স্ক ভাতার কার্ড পাওয়ার আশায় ভিক্ষা করে জমানো ৬ হাজার টাকা তার গ্রামের রাজ্জাক নামের এক যুবকের হাতে তুলে দেন এই বৃদ্ধা। কিন্তু তিন বছর পেরিয়ে গেলেও বয়স্ক ভাতার কার্ড আজও পাননি এ নারী।

পরে প্রতারণার বিষয়ে স্থানীয় গোলাম শাহরিয়ার বিদ্যুৎ ও আসাদুজ্জামান আসাদ নামে দুই ছাত্রলীগ নেতাকে জানালে ওই বৃদ্ধার খোয়া যাওয়া টাকা উদ্ধার করে দেন। সেই সঙ্গে ওই বৃদ্ধার বাড়িতে ১০ দিনের খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেন তারা।

ভুক্তভোগী ওই বৃদ্ধা জানান, তিন বছর আগে ভাতার কার্ড করে দেয়ার কথা বলে প্রতিবেশী আবদুর রাজ্জাক ছয় হাজার টাকা নেয়। ওই যুবককে দেয়া টাকা চাইতে গেলে নানা টালবাহানা করে ওই প্রতারক।

সুন্দরগঞ্জে প্রতারণার শিকার বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন এমপি শামীম

 গাইবান্ধা প্রতিনিধি 
০৮ মে ২০২০, ১০:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে প্রতারণার শিকার বৃদ্ধা আনোয়ারা বেগমের (৭০) দায়িত্ব নিলেন জাতীয় পার্টির অতিরিক্ত মহাসচিব (রংপুর) ও স্থানীয় এমপি ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী। তিনি ভাতার কার্ড পাইয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করবেন বলে জানা গেছে।

শুক্রবার দুপুরে ওই বৃদ্ধাকে কার্ড করে দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন এমপি ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী।

গত কয়েকদিন আগে ওই বৃদ্ধার সঙ্গে প্রতারণার বিষয়ে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বিষয়টি এমপির নজরে এলে বৃদ্ধা আনোয়ারা বেগমকে বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দিতে তিনি তার বিশেষ সহকারীকে নির্দেশ দেন। এমপির নির্দেশনা অনুযায়ী ওই বৃদ্ধার জাতীয় পরিচয়পত্রে এমপির সুপারিশসহ সমাজসেবা অফিসে জমা দেয়া হয়েছে।

প্রতারণার শিকার ওই বৃদ্ধা উপজেলার দহবন্দ ইউনিয়নের দক্ষিণ ধুমাইটারী গ্রামের মৃত আসকার আলীর স্ত্রী। তিন বছর আগে বয়স্ক ভাতার কার্ড পাওয়ার আশায় ভিক্ষা করে জমানো ৬ হাজার টাকা তার গ্রামের রাজ্জাক নামের এক যুবকের হাতে তুলে দেন এই বৃদ্ধা। কিন্তু তিন বছর পেরিয়ে গেলেও বয়স্ক ভাতার কার্ড আজও পাননি এ নারী।

পরে প্রতারণার বিষয়ে স্থানীয় গোলাম শাহরিয়ার বিদ্যুৎ ও আসাদুজ্জামান আসাদ নামে দুই ছাত্রলীগ নেতাকে জানালে ওই বৃদ্ধার খোয়া যাওয়া টাকা উদ্ধার করে দেন। সেই সঙ্গে ওই বৃদ্ধার বাড়িতে ১০ দিনের খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেন তারা।

ভুক্তভোগী ওই বৃদ্ধা জানান, তিন বছর আগে ভাতার কার্ড করে দেয়ার কথা বলে প্রতিবেশী আবদুর রাজ্জাক ছয় হাজার টাকা নেয়। ওই যুবককে দেয়া টাকা চাইতে গেলে নানা টালবাহানা করে ওই প্রতারক।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন