বিবাহবার্ষিকীর জন্য জমানো অর্থ ত্রাণ তহবিলে দিলেন ডা. ডিসি রায়
jugantor
বিবাহবার্ষিকীর জন্য জমানো অর্থ ত্রাণ তহবিলে দিলেন ডা. ডিসি রায়

  একরাম তালুকদার, দিনাজপুর  

১১ মে ২০২০, ২২:২৫:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বিগত ১৪ বছরের ন্যায় এবারও বেশ সাড়ম্বরে বিবাহবার্ষিকী উদযাপনের পরিকল্পনা করে রেখেছিলেন। ভেবেছিলেন প্রতিবছরের ন্যায় এবারও পরিবার-পরিজন, আত্মীয়-স্বজন আর বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে উদযাপন করবেন দাম্পত্য জীবনের বিশেষ এই দিনটি।

কিন্তু করোনা মহাদুর্যোগের এই সময়ে কর্মহীন, অসহায় ও দুঃস্থ মানুষ যেখানে ঠিকমত দু-মুঠো খাবার পায় না, সেখানে এই দিবসটি অন্যবারের মতো উদযাপনের কোনো মানেই হয় না। তাই বিবাহ বার্ষিকীর জন্য রাখা অর্থ দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের আপদকালীন সহায়তা তহবিলে তুলে দিলেন দিনাজপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. ডিসি রায়।

সহধর্মীনি যুথিকা রায়ের সঙ্গে পরামর্শ করে রোববার তিনি এই বিবাহবার্ষিকীর এই অর্থ তুলে দেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলমের হাতে।

দিনাজপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. ডিসি রায় জানান, গত ১৫ বছর আগে ১০ মে যুথিকা রায়কে তিনি বিয়ে করেন। প্রতিবছরই তারা এই দিনটি উদযাপন করেন ধুমধামের সঙ্গে। কিন্তু এবার করোনা ভাইরাসের মহাদুর্যোগের ফলে অনেকে দু-মুঠো খাবার পায় না। সেসব মানুষের দু-মুঠো খাবার যোগাতে বিবাহ বার্ষিকীর জন্য রাখা ১০ হাজার ১ টাকা তুলে দেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের করোনা পরিস্থিতিতে সহায়তা তহবিলে। আর এই অর্থ ত্রাণ তহবিলে দিতে পেরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন তার সহধর্মীনি কলেজ শিক্ষিকা যুথিকা রায়ও।

দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম তার ফেসবুক ওয়ালে লিখেন, দিনাজপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. ডিসি রায় তার বিবাহবার্ষিকী উদযাপনের অর্থ করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হওয়া দুঃস্থদের সাহায্যের জন্য আপদকালীন সহায়তা তহবিলে জমা দিতে আসলে কৃতজ্ঞচিত্তে গ্রহণ করা হয়। দেশের এই ক্রান্তিকালে এমন একটি সুন্দর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার জন্য তাকে এবং তার সহধর্মিণীকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

বিবাহবার্ষিকীর জন্য জমানো অর্থ ত্রাণ তহবিলে দিলেন ডা. ডিসি রায়

 একরাম তালুকদার, দিনাজপুর 
১১ মে ২০২০, ১০:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিগত ১৪ বছরের ন্যায় এবারও বেশ সাড়ম্বরে বিবাহবার্ষিকী উদযাপনের পরিকল্পনা করে রেখেছিলেন। ভেবেছিলেন প্রতিবছরের ন্যায় এবারও পরিবার-পরিজন, আত্মীয়-স্বজন আর বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে উদযাপন করবেন দাম্পত্য জীবনের বিশেষ এই দিনটি।

কিন্তু করোনা মহাদুর্যোগের এই সময়ে কর্মহীন, অসহায় ও দুঃস্থ মানুষ যেখানে ঠিকমত দু-মুঠো খাবার পায় না, সেখানে এই দিবসটি অন্যবারের মতো উদযাপনের কোনো মানেই হয় না। তাই বিবাহ বার্ষিকীর জন্য রাখা অর্থ দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের আপদকালীন সহায়তা তহবিলে তুলে দিলেন দিনাজপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. ডিসি রায়।

সহধর্মীনি যুথিকা রায়ের সঙ্গে পরামর্শ করে রোববার তিনি এই বিবাহবার্ষিকীর এই অর্থ তুলে দেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলমের হাতে।

দিনাজপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. ডিসি রায় জানান, গত ১৫ বছর আগে ১০ মে যুথিকা রায়কে তিনি বিয়ে করেন। প্রতিবছরই তারা এই দিনটি উদযাপন করেন ধুমধামের সঙ্গে। কিন্তু এবার করোনা ভাইরাসের মহাদুর্যোগের ফলে অনেকে দু-মুঠো খাবার পায় না। সেসব মানুষের দু-মুঠো খাবার যোগাতে বিবাহ বার্ষিকীর জন্য রাখা ১০ হাজার ১ টাকা তুলে দেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের করোনা পরিস্থিতিতে সহায়তা তহবিলে। আর এই অর্থ ত্রাণ তহবিলে দিতে পেরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন তার সহধর্মীনি কলেজ শিক্ষিকা যুথিকা রায়ও।

দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম তার ফেসবুক ওয়ালে লিখেন, দিনাজপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. ডিসি রায় তার বিবাহবার্ষিকী উদযাপনের অর্থ করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হওয়া দুঃস্থদের সাহায্যের জন্য আপদকালীন সহায়তা তহবিলে জমা দিতে আসলে কৃতজ্ঞচিত্তে গ্রহণ করা হয়। দেশের এই ক্রান্তিকালে এমন একটি সুন্দর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার জন্য তাকে এবং তার সহধর্মিণীকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০