বরিশালে এক মাসে করোনায় আক্রান্ত ৫৮ জন, সুস্থ ৩৪
jugantor
বরিশালে এক মাসে করোনায় আক্রান্ত ৫৮ জন, সুস্থ ৩৪

  বরিশাল ব্যুরো  

১৩ মে ২০২০, ১২:৪৮:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালে এক মাসে করোনায় আক্রান্ত ৫৮ জন, সুস্থ ৩৪

গত ১২ এপ্রিল বরিশাল জেলায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর পর কেটে গেছে দীর্ঘ এক মাস। এ ছাড়া জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরও দুজনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে বরিশালে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৮ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তদের মধ্যে বরিশাল নগরীর কাউনিয়া এলাকার বাসিন্দা একজন নারী। তার বয়স (২০)। অন্য একজন উজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত নার্স ও উপজেলার বাসিন্দা বয়স (২৭)।

মঙ্গলবার রাতে বরিশাল জেলা প্রশাসনের মিডিয়া সেল থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

গত ১২ এপ্রিল এ জেলায় প্রথমবারের মতো মেহেন্দীগঞ্জ ও বাকেরগঞ্জ উপজেলায় দুজন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। তা থেকে বৃদ্ধি পেয়ে এক মাসে পর্যায় ক্রমে ৫৮ জনে এসে দাঁড়াল কোভিড-১৯ পজিটিভ।

করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্তের পরিপ্রেক্ষিতে ওই দিনই জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করে প্রশাসন। মঙ্গলবার এক মাস পূর্ণ হলো বরিশাল জেলা লকডাউনের।

বরিশাল জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান জানান, রিপোর্ট পাওয়ার পর পরই ওই দুই ব্যক্তির অবস্থান অনুযায়ী তাদের লকডাউন করা হয়েছে এবং তাদের আশপাশের বসবাসের অবস্থান নিশ্চিত করে লকডাউন করার প্রক্রিয়া চলছে।

পাশাপাশি তাদের অবস্থান এবং কোন কোন স্থানে যাতায়াত ও কাদের সংস্পর্শে ছিলেন তা চিহ্নিত করার কাজ চলছে, সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এখন পর্যন্ত বরিশাল জেলায় ২৪ নারী ও ৩৪ পুরুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ২০ বছর বয়স পর্যন্ত আক্রান্ত ছয়জন, ২০-৫০ বছর পর্যন্ত আক্রান্ত ৪০ জন, ৫০ থেকে তার ঊর্ধ্বে ১২ জন।

বরিশাল জেলায় করোনা আক্রান্ত উপজেলার মধ্যে, বরিশাল মহানগরী ২৩, বাবুগঞ্জ ১২, মেহেন্দীগঞ্জ পাঁচ, উজিরপুরে পাঁচ, হিজলা তিন, গৌরনদীতে তিন, বানারীপাড়া দুই, বাকেরগঞ্জে দুই, সদর উপজেলা এক, মুলাদী এক এবং আগৈলঝাড়া একজন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়।

এ জেলায় ৩৪ ব্যক্তি করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

উল্লেখ্য, মোট আক্রান্তের মধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগে কর্মরত আটজন ইন্টার্ন চিকিৎসক, ছয়জন চিকিৎসক, ছয়জন নার্স ও একজন পরিবার পরিকল্পনা-পরিদর্শকসহ মোট ১৬ জন।

এদিকে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) কার্যালয়ের এক গাড়িচালকের করোনা পজিটিভ হওয়ায় তাকে বরিশাল জেলা পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ওই কার্যালয়ের কর্মরতদের কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন পুলিশ কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান।

বরিশালে এক মাসে করোনায় আক্রান্ত ৫৮ জন, সুস্থ ৩৪

 বরিশাল ব্যুরো 
১৩ মে ২০২০, ১২:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বরিশালে এক মাসে করোনায় আক্রান্ত ৫৮ জন, সুস্থ ৩৪
ফাইল ছবি

গত ১২ এপ্রিল বরিশাল জেলায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর পর কেটে গেছে দীর্ঘ এক মাস। এ ছাড়া জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরও দুজনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে বরিশালে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৮ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তদের মধ্যে বরিশাল নগরীর কাউনিয়া এলাকার বাসিন্দা একজন নারী। তার বয়স (২০)। অন্য একজন উজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত নার্স ও উপজেলার বাসিন্দা বয়স (২৭)।

মঙ্গলবার রাতে বরিশাল জেলা প্রশাসনের মিডিয়া সেল থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

গত ১২ এপ্রিল এ জেলায় প্রথমবারের মতো মেহেন্দীগঞ্জ ও বাকেরগঞ্জ উপজেলায় দুজন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। তা থেকে বৃদ্ধি পেয়ে এক মাসে পর্যায় ক্রমে ৫৮ জনে এসে দাঁড়াল কোভিড-১৯ পজিটিভ। 

করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্তের পরিপ্রেক্ষিতে ওই দিনই জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করে প্রশাসন।  মঙ্গলবার এক মাস পূর্ণ হলো বরিশাল জেলা লকডাউনের।

বরিশাল জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান জানান, রিপোর্ট পাওয়ার পর পরই ওই দুই ব্যক্তির অবস্থান অনুযায়ী তাদের লকডাউন করা হয়েছে এবং তাদের আশপাশের বসবাসের অবস্থান নিশ্চিত করে লকডাউন করার প্রক্রিয়া চলছে। 

পাশাপাশি তাদের অবস্থান এবং কোন কোন স্থানে যাতায়াত ও কাদের সংস্পর্শে ছিলেন তা চিহ্নিত করার কাজ চলছে, সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এখন পর্যন্ত বরিশাল জেলায় ২৪ নারী ও ৩৪ পুরুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ২০ বছর বয়স পর্যন্ত আক্রান্ত ছয়জন, ২০-৫০ বছর পর্যন্ত আক্রান্ত ৪০ জন, ৫০ থেকে তার ঊর্ধ্বে ১২ জন।

বরিশাল জেলায় করোনা আক্রান্ত উপজেলার মধ্যে, বরিশাল মহানগরী ২৩, বাবুগঞ্জ ১২, মেহেন্দীগঞ্জ পাঁচ, উজিরপুরে পাঁচ, হিজলা তিন, গৌরনদীতে তিন, বানারীপাড়া দুই, বাকেরগঞ্জে দুই, সদর উপজেলা এক, মুলাদী এক এবং আগৈলঝাড়া একজন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়।

এ জেলায় ৩৪ ব্যক্তি করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

উল্লেখ্য, মোট আক্রান্তের মধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগে কর্মরত আটজন ইন্টার্ন চিকিৎসক, ছয়জন চিকিৎসক, ছয়জন নার্স ও একজন পরিবার পরিকল্পনা-পরিদর্শকসহ মোট ১৬ জন। 

এদিকে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) কার্যালয়ের এক গাড়িচালকের করোনা পজিটিভ হওয়ায় তাকে বরিশাল জেলা পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ওই কার্যালয়ের কর্মরতদের কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন পুলিশ কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস