ছেলের লাশসহ মাকে নামিয়ে দেয়া সেই বাস জব্দ

  পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি ১৩ মে ২০২০, ১৫:২১:১৭ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি: যুগান্তর

করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে ছেলের মরদেহসহ তার মাকে জোর করে সড়কের পাশে ফেলে যাওয়ার ঘটনায় দূরপাল্লার আহাদ পরিবহনের সেই বাসটি জব্দ করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতেই পাঁচবিবি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলার সীমান্তবর্তী বাগজানার একটি বাঁশঝাড়ের ভেতর লুকিয়ে রাখা বাসটি উদ্ধার করা হয়। তবে বাসচালক ও সহকারীকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার দিবাগত রাতে নওগাঁগামী আহাদ পরিবহনের বাসটি যাত্রী নিয়ে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসে। বাসটিতে অসুস্থ ছেলে মিজানুর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে তার মা সোহাগী বেগম বাড়িতে আসছিলেন। বাসের ভেতর ঘুমিয়ে থাকাবস্থায় মারা যান মিজানুর রহমান। বাসচালক ও সহকারীকে মিজানুর রহমানের মা তার ছেলের মৃত্যুর ঘটনাটি জানান।

বিষয়টি জানতে পেরে তারা মিজানুর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সন্দেহ করে মরদেহসহ তার মাকে রাতেই জয়পুরহাট-বগুড়া আঞ্চলিক মহাসড়কের জয়পুরহাট সদরের হিচমিবাজারের পাশে জোর করে নামিয়ে দিয়ে যান।

এ ঘটনায় চালক ও হেলপারের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়।

পাঁচবিবি থানার ওসি মনসুর রহমান বলেন, করোনাভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে সরকার রাস্তায় সব গণপরিবহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। এ সময় সুযোগ বুঝে রাতের অন্ধকারে বিপদেপড়া যাত্রীর কাছ থেকে অধিক ভাড়া নিয়ে আহাদ এন্টারপ্রাইজ নামের ঢাকা কোচটি যাত্রী আনা-নেয়া করে আসছিল।

আহাদ পরিবহনের বাসটি জব্দ করা হলেও এর চালক ও সহকারী পলাতক রয়েছেন।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত