লকডাউন তুললে মৃত্যু ও ভোগান্তি বাড়বে: ফাউসির হুশিয়ারি

  যুগান্তর ডেস্ক ১৩ মে ২০২০, ২০:১৩:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি: সংগৃহীত

শিগগিরই লকডাউন তুলে নেয়া হলে করোনাভাইরাস আরও বেশি ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে সিনেটরদের সতর্ক করে দিয়েছেন মার্কিন শীর্ষ সংক্রামক বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউসি।

তিনি বলেন, অর্থনীতি ফের সচল করতে যদি কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুসরণ করা না হয়, তবে ‘ছোট ছোট উত্থান’ এক সময় প্রাদুর্ভাবের রূপ নিতে পারে।-খবর বিবিসির

করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর সংখ্যা আনুষ্ঠানিক হিসাবের তুলনায় বেশি হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮০ হাজার লোক ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছে মৃত্যুবরণ করেছেন। যা বিশ্বের যে কোনো দেশের তুলনায় বেশি।

দেশের অর্থনীতিকে খুলে দিতে অধীর আগ্রহে বসে থাকা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আশার কথা শোনালেও তার বিপরীতে গিয়ে সতর্কবার্তা দিলেন দেশটির এই শীর্ষ বিজ্ঞানী।

সিনেটে রিপাবলিকান নেতৃত্বাধীন কমিটিতে ভিডিওর মাধ্যমে কথা বলেছেন ডা. ফাউসি।

হোয়াইট হাউসের ‘আমেরিকাকে ফের সচল করে দেয়ার’ পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এতে প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে, যা কর্মকর্তাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে। এতে অর্থনীতিকে পুনরুদ্ধারে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হবে। মানুষের ভোগান্তি ও মৃত্যু বাড়বে।

নতুন করোনাভাইরাসের কবল থেকে বাঁচতে বেশ কয়েকটি টিকা নিয়ে কাজ চলছে বলেও জানান ফাউসি। তবে এর যে কোনো একটি কার্যকর হিসেবে আবির্ভূত হবেই এমন নিশ্চয়তা দিতে পারেননি তিনি।

বললেন, অনেকেই কাজ করছে। আশা করছি, অনেক বিজয়ীকে দেখতে পাবো আমরা।

তিন ঘণ্টার এ শুনানিতে ফাউসি ছাড়াও হোয়াইট হাউসের করোনাভাইরাস টাস্ক ফোর্সের আরও দুই সদস্য এবং সিনেটের হেলথ, এডুকেশন লেবার অ্যান্ড পেনশন বিষয়ক কমিটির কিছু সদস্যও ভিডিও লিংকের মাধ্যমে সংযুক্ত হন।

আক্রান্তদের সংস্পর্শে এসে থাকতে পারেন, এ আশঙ্কায় ফাউসির মতোই শুনানিতে অংশ নেয়া যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের পরিচালক ড. রবার্ট রেডফিল্ড এবং ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশস অ্যাসোসিয়েশনের কমিশনার স্টিফেন হানও স্বেচ্ছা আইসোলশনে আছেন।

ভাইরাস শনাক্তে পরীক্ষা হলেও ফাউসির দেহে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ এর উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। আপাতত বাড়ি থেকেই কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি এবং পরে তার শরীরে ফের ভাইরাসের উপস্থিতি পরীক্ষা করে দেখা হবে।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত