লকডাউনের মধ্যেই করোনার হটস্পট নারায়ণগঞ্জে তীব্র যানজট

  নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ১৩ মে ২০২০, ২৩:০১:১১ | অনলাইন সংস্করণ

দেশে করোনাভাইরাসের এপি সেন্টার বা হটস্পট, কোন বিশেষনই যেন মিল খাচ্ছে না শিল্প ও বন্দর নগরী নারায়ণগঞ্জের বর্তমান চিত্রে।

লকডাউনের মধ্যেই চলছে ৪ শতাধিক শিল্প কারখানা, খুলেছে মার্কেট বিপণি বিতান আর রাস্তায় চলছে শত শত যানবাহন।

সকাল থেকে বিকাল অবধি নগরীর প্রধান সড়কের তীব্র যানজট দেখে বোঝারই উপায় নেই এ জেলায় প্রতিদিন করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে।

যানজট এতটাই বাড়ছে যে, ট্রাফিক ব্যবস্থাও ভেঙ্গে পরেছে করোনার রেডজোন নারায়ণগঞ্জে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বুধবার দুপুরে শহরের চাষাঢ়ায় প্রেসক্লাবের সামনে মালাবোঝাই ট্রাক ও যাত্রীবাহী গাড়ির কারণে শহরে যানজটের সৃষ্টি হয়।

শহরের মার্কেটগুলো ছিল খোলা, সেখানে নারী পুরুষ এমনকি শিশুদের ভিড়ও ছিল চোখে পড়ার মতো। বিভিন্ন মার্কেট মালিকদের দাবি তারা পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই মার্কেট খুলেছেন, তবে তা সঠিকভাবে পালন করতে দেখা যায়নি দোকানি কিংবা ক্রেতাদের।

যানজটে থাকা পিকআপ ও ট্রাকের চালকারা বলেন, আমরা শহরের নিতাইগঞ্জ থেকে মালামাল নিয়ে বের হয়েছি। কিন্তু শহরের যানজট দেখে আমরাও বিস্মিত।

আটকে থাকা এক রিকশা যাত্রী জানান, ঈদের কেনাকাটা করতে সন্তানকে নিয়ে বের হয়েছিলাম। এখন মার্কেটে যাওয়ার পথে জ্যামে আটকা পড়েছি। আজ প্রচুর মানুষ বের হয়েছে বাড়ি থেকে, তাই হয়তো যানজট।

এ ব্যাপারে চাষাঢ়ায় দায়িত্বে থাকা ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা জানান, পরিস্থিতি কী সেটা আপনারা গণমাধ্যম কর্মীরাই দেখছেন। কাকে আটকাবো আর কাকে ছাড়বো আমরাও সেই ব্যাপারে অপরাগ।

শুধুমাত্র জেলার বাইরে যাতে কেউ যেতে না পারে সেদিকেই আপাপতত লক্ষ্য রাখছি। যাকেই ধরি সেই বলে গার্মেন্টে যাচ্ছেন, না হয় মার্কেটে না হয় জরুরি কাজের ‘ছুতা'। আমরা আসলে কীবা করতে পারি।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত