ভারতে ২৪ ঘণ্টায় ১০০ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৩৯৬৭
jugantor
ভারতে ২৪ ঘণ্টায় ১০০ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৩৯৬৭

  অনলাইন ডেস্ক  

১৫ মে ২০২০, ১৫:১৩:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

মহামারী করোনাভাইরাস দক্ষিণ এশিয়ায় ভয়াল রুপ নিয়েছে। ভারতে রোজ হাজার হাজার মানুষ সংক্রমিত হচ্ছে।গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতেপ্রায় ৪ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন একশ’ মানুষ।

দেশটির সরকারের বরাত দিয়ে জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিব জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত সারা দেশে মোট ৮১,৯৭০ জন কোভিড-১৯ এআক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ২,৬৪৯ জন।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের শুক্রবার সকাল পর্যন্ত দেয়া পরিসংখ্যান বলছে, ভারতে করোনায় ভোগে মৃত্যু হয়েছে মোট ২,৬৪৯ জনের।

তবে এখনও পর্যন্ত ওই রোগে আক্রান্ত হয়েও সুস্থতার পথে ফিরে গেছেন বহু মানুষ। ২৭,৯২০ জন মানুষ করোনা জয় করেছেন।

করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে দেশে গত ২৫ মার্চ থেকে লকডাউন জারি করা হয়। তবে ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ইঙ্গিত দিয়েছেনযে, ১৭ মে তারিখের পরেও উঠছে না লকডাউন। ১৮ মে থেকে দেশে আরেক দফা জারি হবে লকডাউন।

এদিকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বৃহস্পতিবার মাইকোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের সঙ্গে আলোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এইমহামারীর মোকাবিলায় বৈজ্ঞানিক গবেষণাসহ বৈশ্বিক সমন্বয়ের গুরুত্ব নিয়েও আলোচনা করেন তারা।

প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে টুইটারেলেখেন,‘@BillGates এর সঙ্গে অনেকক্ষণ ধরে আলাপ-আলোচনা করলাম। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে কীভাবে লড়াই করছে ভারত তানিয়ে যেমন আলোচনা করেছি তেমনই কোভিড- ১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে @gatesfoundation এর কাজ নিয়েও আলোচনা করেছি।

পাশাপাশি এই পরিস্থিতিতে প্রযুক্তির ভূমিকা, বিভিন্ন গবেষণা এবং এই মহামারী নিরাময়ের জন্য ভ্যাকসিন তৈরির বিষয় নিয়েও আলোচনাহয়েছে আমাদের মধ্যে’।

গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এরইমধ্যে বিশ্বের ২১৩ টি দেশ ও অঞ্চলে বিস্তার ঘটিয়েছে। এখনপর্যন্ত তিন লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে এই রোগে। এটিকে মহামারী ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় ১০০ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৩৯৬৭

 অনলাইন ডেস্ক 
১৫ মে ২০২০, ০৩:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মহামারী করোনাভাইরাস দক্ষিণ এশিয়ায় ভয়াল রুপ নিয়েছে। ভারতে রোজ হাজার হাজার মানুষ সংক্রমিত হচ্ছে।গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে প্রায় ৪ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন একশ’ মানুষ। 

দেশটির সরকারের বরাত দিয়ে জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিব জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত সারা দেশে মোট ৮১,৯৭০ জন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ২,৬৪৯ জন।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের শুক্রবার সকাল পর্যন্ত দেয়া পরিসংখ্যান বলছে, ভারতে করোনায় ভোগে মৃত্যু হয়েছে মোট ২,৬৪৯ জনের। 

তবে এখনও পর্যন্ত ওই রোগে আক্রান্ত হয়েও সুস্থতার পথে ফিরে গেছেন বহু মানুষ। ২৭,৯২০ জন মানুষ করোনা জয় করেছেন।

করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে দেশে গত ২৫ মার্চ থেকে লকডাউন জারি করা হয়। তবে ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ইঙ্গিত দিয়েছেন যে, ১৭ মে তারিখের পরেও উঠছে না লকডাউন। ১৮ মে থেকে দেশে আরেক দফা জারি হবে লকডাউন।

এদিকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বৃহস্পতিবার মাইকোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের সঙ্গে আলোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই মহামারীর মোকাবিলায় বৈজ্ঞানিক গবেষণাসহ  বৈশ্বিক সমন্বয়ের গুরুত্ব নিয়েও আলোচনা করেন তারা।

প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে টুইটারে লেখেন,‘@BillGates এর সঙ্গে অনেকক্ষণ ধরে আলাপ-আলোচনা করলাম। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে কীভাবে লড়াই করছে ভারত তা নিয়ে যেমন আলোচনা করেছি তেমনই কোভিড- ১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে @gatesfoundation এর কাজ নিয়েও আলোচনা করেছি। 

পাশাপাশি এই পরিস্থিতিতে প্রযুক্তির ভূমিকা, বিভিন্ন গবেষণা এবং এই মহামারী নিরাময়ের জন্য ভ্যাকসিন তৈরির বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে আমাদের মধ্যে’।

গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এরইমধ্যে বিশ্বের ২১৩ টি দেশ ও অঞ্চলে বিস্তার ঘটিয়েছে। এখন পর্যন্ত তিন লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে এই রোগে। এটিকে মহামারী ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস